প্রজন্ম যুব সমাজের মাহফিল

বায়তুশ শরফ মজলিসুল ওলামা বাংলাদেশের মহাসচিব মাওলানা মামুনুর রশীদ নূরী বলেছেন, আল কুরআন একটি সুমহান গ্রন্থ। জ্ঞান অর্জনের সর্বশ্রেষ্ট উৎস এবং মর্যাদাপূর্ণ জীবনাচরণের কর্মপদ্ধতির গাইড। তিনি বলেন, কুরআনের মৌলিক উদ্দেশ্য হচ্ছে পৃথিবীর মানুষ গুলোকে শিরক ও কুসংস্কার থেকে হিদায়তের দিকে ফিরিয়ে আনা। প্রধান অতিথি আরো বলেন, বিজ্ঞান ভিত্তিক কুরআনের চর্চা মুসলমানদের ঈমান আক্বীদাকে সুদৃঢ় করবে এবং কুরআনের বৈজ্ঞানিক তাফসীর আধুনিক যুগে কুরআনের আলৌকিকত্ব প্রমান করার জন্য সর্বাপেক্ষাদিক।

মাওলানা নূরী আজ চট্টগ্রাম রেলওয়ে ষ্টেশন কলোনী প্রজন্ম যুব সমাজ এর উদ্যোগে আয়োজিত এক বিশাল মিলাদুন্নবী (স:) মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথা বলেন।

প্রজন্ম যুব সমাজের আহবায়ক হেলাল উদ্দিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মাহফিলে প্রধান অতিথি আরো বলেন, কুরআন হাদিসের শিক্ষা বাদ দিয়ে বৃটিশ প্রণীত শিক্ষা ব্যবস্থায় কখনো আদর্শ সুনাগরিক তৈরী হবে না। স¤্রাজ্যবাদীরা ষড়যন্ত্রমূলক ভাবে এদেশের মুসলিম সন্তানদের মেধা শূন্য ও লক্ষ্যহীন করে রাখার উদ্দেশ্যে এ শিক্ষা ব্যবস্থা চাপিয়ে দিয়েছে। যাতে ভবিষ্যত প্রজন্ম জঙ্গীবাদ, সন্ত্রাস, মাদক ও ব্যভিচারীতে জড়িয়ে পরে মুসলিম নেতৃত্বহীন জাতিতে পরিণত হয়ে যায়। মাওলানা নূরী আধুনিক জাহিলিয়াতে নিমজ্জিত লক্ষ্যহীন সন্তানদের হৃদয়তন্ত্রীতে কুরআন হাদিসের জ্ঞান পৌছায়ে দেবার জন্য আলেম ওলামা পীরমাশায়েখ ও মুসলিম অভিভাবকদের দায়িত্বশীল ভূমিকা রাখার আহবান জানান।

মাহফিলে প্রধান বক্তা ছিলেন কুমিল্লা নবীপুর হাইস্কুল জামে মসজিদের খতিব মাওলানা কামাল উদ্দিন নূরী, বিশেষ বক্তা ছিলেন রেলওয়ে ষ্টেশন কলোনী জামে মসজিদের ইমাম মুফতি ইব্রাহীম আনোয়ারী ও বানিয়ার টিলা জামে মসজিদের খতিব মাওলানা সাহাব উদ্দিন। বক্তব্য রাখেন আনোয়ার হোসেন, হাজী বাদশা, মো: আলাউদ্দিন ও মুহাম্মদ ঝন্টু প্রমুখ। – বিজ্ঞপ্তি