এম. মনিরুজ্জামান, রাজবাড়ী প্রতিনিধি : রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলার চার ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থীর কর্মী সমর্থকদের মারধর ও অফিস ভাংচুরের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ব্যাপারে বালিয়াকান্দি থানায় পৃথক অভিযোগ দেওয়া হয়েছে।

বহরপুর ইউনিয়নের তেতুলিয়া, নতুনচর, আড়কান্দি এলাকায় স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী খলিলুর রহমানের অফিস ভাংচুর করা হয়েছে। এ সময় প্রার্থীর সমর্থকদের ভয়ভীতি দেখানো হয়। খলিলুর রহমান উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও বালিয়াকান্দি থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

নবাবপুর ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী রফিকুল ইসলাম বাচ্চুর অফিসে হামলা ভাংচুরের ঘটনায় থানায় অভিযোগ দেওয়া হয়েছে। জাহিদুল ইসলাম বাদী হয়ে সাদ্দামসহ কয়েকজনের বিরুদ্ধে এ অভিযোগ দেওয়া হয়।

জঙ্গল ইউনিয়নের স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী নৃপেন্দ্র নাথ বসুর কর্মী অনুপ বিশ্বাসকে মারধর ও তার মোটরসাইকেলটি ভাংচুর করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। শুক্রবার রাতে সাড়ে সাতটার দিকে ইউনিয়নের সমাধিনগর বাজারে এ ঘটনা ঘটে। অনুপ বিশ্বাসের অভিযোগ, ইতিপূর্বে তাকে নৃপেন্দ্র নাথ বিশ্বাসের পক্ষে কাজ না করতে হুমকি দেওয়া হয়েছিল। তিনি থানায় অভিযোগ করায় এ হামলা চালানো হয়েছে।

এ ছাড়া ইসলামপুর ইউনিয়নে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী আহমেদ আলী সমর্থকদের মারধর করার অভিযোগে হাফিজুর রহমান বাদী হয়ে একটি অভিযোগ দিয়েছেন।

বালিয়াকান্দি থানার ওসি তারিকুজ্জামান জানান, অবাধ সুষ্ঠু নির্বাচনের স্বার্থে কাউকে ছাড় দেওয়া হবেনা। আইননাযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

অপরদিকে নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘনের দায়ে উপজেলার বহরপুর, জামালপুর, নবাবপুর ও বালিয়াকান্দি সদর এ চারটি ইউনিয়নের ১৬ জন প্রার্থীকে মোট ৭২ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

রোববার সন্ধ্যায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে বালিয়াকান্দি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (হাসিবুল হাসান) তিন জনকে এবং রাজবাড়ীর নির্বাহী ম্যাজিসেট্রট বিপুল শিকদার ১৩ জনকে এ দন্ড দেন।

বিপুল শিকদার জানান, মোটরসাইকেল শোভাযাত্রা, দেওয়ালে পোস্টার লাগানোসহ বিভিন্ন কারণে এ জরিমানা করা হয়েছে।