বান্দরবান সংবাদদাতা : নিরাপত্তার কারণে বান্দরবানের রুমা, রোয়াংছড়ি, থানচি এই তিন উপজেলায় পর্যটকদের ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা আগামী ১২ নভেম্বর পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় জেলা প্রশাসক ইয়াছমিন পারভীন তিবরীজি স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনে বিষয়টি জানানো হয়।

সূত্রে জানা যায়, জেলার রুমা, রোয়াংছড়ি এবং থানচি উপজেলার সীমান্তবর্তী পাহাড়ি এলাকাগুলোতে যৌথবাহিনীর জঙ্গি ও সন্ত্রাসবিরোধী অভিযান পরিচালিত হচ্ছে। সাঁড়াশি অভিযানে নিরাপত্তা বিবেচনায় পর্যটকদের ভ্রমণে সাময়িক নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়।

এর আগে রোয়াংছড়ি ও রুমা উপজেলায় ১৮ অক্টোবর থেকে অনির্দিষ্টকালের নিষেধাজ্ঞা শুরু হয়। পরে রুমা, থানচি, রোয়াংছড়ি ও আলীকম চারটি উপজেলায় গত ২৩ থেকে ৩০ অক্টোবর পর্যন্ত পর্যটকদের ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে জেলা প্রশাসন। পরে ৩০ অক্টোবর থেকে ৪ নভেম্বর পর্যন্ত তৃতীয় দফা আবারও ওই চার উপজেলায় নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে প্রশাসন। ওই সময় সীমা শেষে ৪ নভেম্বর থেকে ৮ নভেম্বর পর্যন্ত চতুর্থ দফা আবারও সময় সীমা বাড়ানো হয়।

তবে এবার ৮ নভেম্বর থেকে ১২ নভেম্বর পর্যটকদের ভ্রমণের নিষেধাজ্ঞায় আলিকদম উপজেলাকে বাদ দিয়ে তিন উপজেলা রুমা, থানচি এবং রোয়াংছড়িতে ভ্রমণে নিষেধজ্ঞা দেয় জেলা প্রশাসন।

গত ২০ অক্টোবর টানা অভিযান চালিয়ে বান্দরবান ও রাঙ্গামাটির বিভিন্ন অঞ্চল থেকে নতুন জঙ্গি সংগঠন ‘জামাতুল আনসার ফিল হিন্দাল শারক্বীয়া’র সাত জন এবং পাহাড়ি বিচ্ছিন্নতাবাদী সংগঠনের তিন জন সহ মোট ১০ জনকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব। এ সময় তদের কাছ থেকে বিপুল পরিমাণ অস্ত্র ও গোলাবারুদ উদ্ধার করা হয়।