বাগমারা (রাজশাহী) প্রতিনিধি : বাগমারায় বিয়ে বাড়িতে এক স্কুলছাত্রীকে যৌন হয়রানির অভিযোগে দুই পক্ষের সংঘর্ষে আহত যুবক মারা গেছে। মঙ্গলবার রাতে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

নিহত ওই যুবকের নাম সাজেদুর রহমান (২৫)। সে শুভডাঙ্গা ইউনিয়নের বিলবাড়ী গ্রামের শুকুর আলীর ছেলে। এই ঘটনায় বুধবার ৯ জনের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাত ২০/২৫ জনের বিরুদ্ধে থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের হয়েছে।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, গত বৃহস্পতিবার বারুইপাড়া গ্রামের সামশুল হকের ছেলের বউভাতের আয়োজন করা হয়। ওই বিয়ে বাড়িতে এক স্কুলছাত্রীকে দুইজন বখাটে যৌন হয়রানী করে বলে তাদের চড়-থাপ্পড় দিয়ে আটকে রাখা হয়। পরে অভিভাবকদের খবর দেওয়া হলে রাতেই গ্রাম্য শালিসে মুচলেকা ও জরিমানা দিয়ে অভিভাবকরা তাদের ছাড়িয়ে নিয়ে যান।

এদিকে কিশোরদের শাস্তি দেওয়ার সঙ্গে যুক্ত বাইরুইপাড়া গ্রামের আকাশ নামের এক যুবককে রোববার হটিবাইগাছা এলাকায় মারপিট করা হয়। এই ঘটনার জের ধরে বারুইপাড়া ও বিলবাড়ি গ্রামের তরুনদের মধ্যে সোমবার সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

এতে উভয় পক্ষের অন্তত: ২৫ জন তরুন আহত হয়। আহতদের রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ও স্থানীয় বিভিন্ন ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়। এদিকে মঙ্গলবার রাতে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন সাজেদুর রহমান মারা যায়।

বাগমারা থানার ওসি রবিউল ইসলাম বলেন, এই ঘটনায় ৯ জনের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাত ২০/২৫ জনের বিরুদ্ধে থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের হয়েছে। আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।