বাগমারা প্রতিনিধি : রাজশাহীর বাগমারায় পবিত্র কোরআন শরীফ সহ মহানাবী (সাঃ) কে নিয়ে কূটুক্তি করায় রিপন কুমার (৩০) নামে এক হিন্দু যুবকের সাথে কথা কাটাকাটি বাধে ভবানীগঞ্জ নিউ মার্কেটের স্থানীয় ব্যবসায়ীদের মধ্যে। বৃহস্পতিবার বেলা ২টার দিকে দুপুরের খাওয়া দাওয়া শেষে নিউ মার্কেটেই ঘুরাফেরা করছিলেন রিপন।

এরই এক পর্যায়ে পবিত্র কোরআন শরীফ নিয়ে কূটুক্তি করায় ব্যবসায়ীরা রিপনের বিচারের দাবীতে প্রতিবাদ মূখর হলে মুহূর্তের মধ্যে রণক্ষেত্র পরিনত হয় ভবানীগঞ্জ নিউ মার্কেট এলাকা। উত্তেজনার শুরুতেই রিপন পাশের একটি দোকানে আশ্রয় নেয়। সেখানে উত্তেজিত জনতা তাকে ওই দোকান থেকে বের করার চেষ্টা চালায়।

পবিত্র কোরআন শরীফ সহ মহানবী (সাঃ)কে নিয়ে কূটুক্তি করার খবরটি ছড়িয়ে পড়লে নিউ মার্কেট সহ আশপাশের ব্যবসায়ী এবং স্থানীয় লোকজন জড়ো হয় নিউ মার্কেটে। খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন উপজেলা নির্বাহী কর্মকতাসহ বাগমারা থানা পুলিশ। পরে সেখানেই তার নিরাপত্তার লক্ষ্যে ঘিরে রাখে পুলিশ। নিউ মার্কেটের ওই দোকানে উত্তেজিত জনতা ঘেরাও করার চেষ্টা করতে গেলে পুলিশ তাৎক্ষনিকভাবে লাঠিচার্জ করে। নিউ মার্কেটের ভেতরেই চলে প্রশাসন এবং জনতার ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া।

সবার মুখে একটাই দাবী পবিত্র কোরআন শরীফ সহ মহানবী (সাঃ) এর কূটুক্তিকারীর বিচার চাই। পুলিশ সহ প্রশাসনের জিম্মায় থাকায় উত্তেজিত জনতা তার কোন ক্ষতি করতে পারেনি। এদিকে নিউ মার্কেট থেকে ওই কূটুত্তিকারী যুবককে পুলিশ ও প্রশাসন উদ্ধার করে থানায় নেয়ার সময় বিক্ষুব্ধ জনতা রিপনকে লক্ষ্য করে পুলিশের গাড়িতে ইট পাটকেল নিক্ষেপ করে। পরিস্থিতি সামাল দিতে নিউ মার্কেট চত্বরে প্রশাসনের পক্ষ থেকে পাঁচরাউন্ড রাবার বুলেট নিক্ষেপ করা হয়।

কোরআন শরীফ নিয়ে কূটুক্তিকারী ওই যুবক উপজেলার বড়-বিহানালী ইউনিয়নের বড়কয়া গ্রামের নিমাই সরকারের ছেলে। রিপন কুমার ভবানীগঞ্জ নিউ মার্কেটে অবস্থিত আনন্দ টেইলার্স এন্ড ফেব্রিক্স এ সেল্সম্যান হিসেবে কাজ করতেন। এ ঘটনায় উত্তেজিত জনতার কয়েকজনসহ এক পুলিশ সদস্য আহত হয়।

এদিকে সন্ধ্যার দিকে রাজশাহী পুলিশের উর্দ্ধতন কর্মকর্তা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। পুনরায় যেন বিশৃঙ্খলা ঘটাতে না পারে সে জন্য নিউ মার্কেট এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফারুক সুফিয়ান বলেন, পবিত্র কোরআন শরীফ নিয়ে হিন্দু এক যুবকের কূটুক্তির ঘটনায় বিশৃংখলার খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছায়। উত্তেজনাকর পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে নিউ মার্কেটের ভিতরেই রাবার বুলেট নিক্ষেপ করা হয়। বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।