এম এম হারুন আল রশীদ হীরা, নওগাঁ : নওগাঁর বদলগাছীতে বঙ্গবন্ধু সরকারি মহাবিদ্যালয়ের ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগে টাকার বিনিময়ে ব্যবহারিক পরীক্ষার নম্বর দেওয়া হচ্ছে।

কলেজের ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের প্রদর্শক মো. আসব উদ্দৌলা এবং একই বিভাগের অফিস সহায়কের দায়িত্ব পালনকারী মো. আলম মন্ডল এর বিরুদ্ধে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে ৪০০ টাকা থেকে ৬০০ টাকা নিয়ে ব্যবহারিক পরীক্ষার নম্বর দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে।

বঙ্গবন্ধু সরকারি মহাবিদ্যায়ের ডিগ্রি তৃতীয় বর্ষের কয়েকজন শিক্ষার্থী অভিযোগ করে জানান, ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের ব্যবহারিক পরীক্ষার জন্য তাদের কাছ থেকে ৬০০ টাকা করে নেওয়া হয়েছে। বিনিময়ে বিগত সালের পুরাতন একটি করে খাতায় প্রদর্শক মো. আসব উদ্দৌলা স্বাক্ষর দিয়ে নম্বর দিয়ে দিচ্ছেন। এসব কাজে সাহায্য করেছেন অস্থায়ীভাবে অফিস সহায়কের দায়িত্ব পালন করা আলম মন্ডল।

এমন অভিযোগের ভিত্তিতে এর সত্যতা যাচাই করার জন্য অফিস সহায়ক আলম মন্ডল কে শিক্ষার্থীর পরিচয় দিয়ে মোবাইলে একটি ব্যবহারিক খাতা চাওয়া হয়। তিনি টাকার বিনিময়ে স্বাক্ষর করা খাতা দিতে রাজি হন এবং ৬০০ টাকা দাবি করেন। বেশি কেন চাচ্ছেন? কিছু কম করা যাবে কি না? এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, সব খাতা দেওয়া শেষ। স্যার (প্রদর্শক আসব উদ্দৌলা) ৬০০ টাকার নিচে দিচ্ছেন না। তবে অনেক জোরাজুরিতে তিনি ৫০০ টাকায় দিতে রাজি হন এবং কলেজের আসতে বলেন।

পরবর্তীতে সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে প্রদর্শক আসব উদ্দৌলা ও অফিস সহায়ক আবুল মন্ডল এর সাথে কথা বললে তারা দুজনেই ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেন এবং খবর প্রকাশ না করার জন্য অনুরোধ করেন।

এ বিষয়ে বঙ্গবন্ধু সরকারি মহাবিদ্যালয়ের ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের বিভাগীয় প্রধান মো. মহিদুল ইসলাম বলেন, আপনার কাছ থেকেই আমি প্রথম এ ধরণের অভিযোগ পেলাম। এ বিষয়ে আমি কিছু জানি না। তবে বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।

এ ব্যাপারে বঙ্গবন্ধু সরকারি মহাবিদ্যালয়ের প্রফেসর মো. সরওয়ারে জাহান বলেন, আমি বিভাগীয় প্রধানের সাথে কথা বলে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।