সুন্দরবনের দুবলার ভেদাখালী খালে নিরাপদ আশ্রয় নিয়েছে ফিশিংবোটবহর। ছবি সংগৃহীত

শেখ মোহাম্মদ আলী, সুন্দরবন অঞ্চল প্রতিনিধি : বঙ্গোপসাগরে প্রবল ঝড়ে ৫টি ফিশিংবোট ডুবে গেছে। নিম্নচাপের কারণে উত্তাল সাগরে টিকতে না পেরে দুই শতাধিক ফিশিংবোটবহর সুন্দরবনসহ উপকূলের বিভিন্ন স্থানে নিরাপদ আশ্রয় নিয়েছে। আবহাওয়া দপ্তর ৩নং সতর্ক সংকেত জারী করেছে।

পিরোজপুরের পাড়েরহাটের আনোয়ার ফিস ট্রেডার্সের মালিক মোঃ আনোয়ার হোসেন জানান, তার আড়তের ফিশিংবোট “এফবি মায়ের দোয়া” সুন্দরবনের কচিখালীর দক্ষিণে পক্ষিদিয়াচরের কাছে গভীর সাগরে শুক্রবার ভোররাত চারটার দিকে ১৩ জেলেসহ ডুবে যায়। বোটের জেলেরা সাগরে চারঘন্টা ভেসে থাকার পরে শুক্রবার সকাল সাতটার দিকে অপর একটি ফিশিংবোট ভাসমান ১৩ জেলেকে উদ্ধার করে নিয়ে আসে। উদ্ধারকৃত জেলেদের বাড়ী তালতলীর নিদ্রাসখিনা।

বরগুনা জেলা ফিশিং ট্রলার মালিক সমিতির সভাপতি গোলাম মোস্তফা চৌধুরী জানান, বৃহস্পতিবার রাত এবং শুক্রবার সকালে পাথরঘাটা এলাকার বাদশা হাওলাদারের মালিকানাধীন ফিশিংবোট “এফবি হাওলাদার”সহ চারটি ফিশিংবোট সাগরে ডুবে যাওয়ার খবর তিনি শুনেছেন এবং কোন জেলে নিখোঁজ নেই বলে মোস্তফা চৌধুরী জানিয়েছেন।

দুবলারচরের মানিকখালী খালে আশ্রয় নেওয়া ফিশিংবোট ”এফবি সাব্বির ” এর মালিক বাগেরহাটের কচুয়া এলাকার মিজানুর রহমান শুক্রবার (১৯ আগষ্ট) সকালে মোবাইল ফোনে বলেন, বৃহস্পতিবার দুপুরের পর থেকে সাগরের আবহাওয়া খুব খারাপ হওয়ায় মাছ ধরা বন্ধ রেখে তারা সুন্দরবনের ভেদাখালী খালের মধ্যে নিরাপদ আশ্রয় নিয়েছেন। এখানে কক্সবাজার চট্রগ্র্রামসহ বিভিন্ন স্থানের দুইশতাধিক ফিশিংবোট আশ্রয় নিয়েছে এবং এবছর এতবড় ঝড় আর হয়নি বলে ঐ মালিক জানান।

বাংলাদেশ ফিশিং ট্রলার মালিক সমিতির সহসভাপতি ও শরণখোলার মতস্য ব্যবসায়ী এম সাইফুল ইসলাম খোকন বলেন, এক সপ্তাহের মধ্যে সাগরের আবহাওয়া তিন দফায় খারাপ হওয়ায় জেলে মতস্যজীবিরা দুর্ভোগে পড়েছেন। শতাধিক ফিশিংবোট সুন্দরবনসহ বিভিন্নস্থানে নিরাপদ আশ্রয়ে রয়েছে বলে জানান।

পূর্ব সুন্দরবনের শরণখোলা রেঞ্জের দুবলা ফরেস্ট টহল ফাঁড়ির ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা দিলীপ মজুমদার শুক্রবার দুপুরে মোবাইল ফোনে জানান, সাগরের অবস্থা খুবই খারাপ। প্রবল বৃষ্টি ও ঝড়ো হাওয়ায় বড় বড় ঢেউ হচ্ছে। অনেক ফিশিংবোট দুবলারচরের ভেদাখালী, মানিকখালী, আমবাড়ীয়াসহ বিভিন্ন খালের মধ্যে নিরাপদ আশ্রয় নিয়ে আছে বলে ঐ ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জানিয়েছেন।