নন্দীগ্রাম (বগুড়া) প্রতিনিধি : বগুড়া-৪ আসনের উপনির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মঙ্গলবার ২৭ ডিসেম্বর বেলা ১১টায় মনোনয়ন পত্র উত্তোলন করেছেন নন্দীগ্রাম পৌরসভার সাবেক মেয়র কামরুল হাসান সিদ্দিকী জুয়েল।

জানা গেছে, বগুড়া-৪ (নন্দীগ্রাম-কাহালু) আসনের বিএনপির সংসদ সদস্য মোশারফ হোসেন সংসদ থেকে পদত্যাগ করার পর আসনটি ফাঁকা হয়ে যায়। এই আসনটিতে এখন উপ-নির্বাচন হবে।

গত ১১ ডিসেম্বর জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর কাছে পদত্যাগপত্র জমা দিলে তা গ্রহণের পর সংসদ সচিবালয় বিজ্ঞপ্তি দিয়ে এই আসন শুন্য ঘোষণা করে। সংবিধান অনুযায়ী ৯০ দিনের মধ্যে শুন্য আসনগুলোতে নির্বাচন করার বাধ্যবাধকতা রয়েছে নির্বাচন কমিশনের।

ইতমধ্যেই বগুড়া-৪ নন্দীগ্রাম -কাহালু আসনে শুরু হয়েছে নির্বাচনের আমেজ। ২৭ ডিসেম্বর স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নন্দীগ্রাম সহকারী রির্টানিং অফিসার ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শিফা নুসরাতের নিকট থেকে মনোনয়ন পত্র উত্তোলন করেছেন সাবেক পৌর প্রশাসক ও পৌর মেয়র কামরুল হাসান সিদ্দিকী জুয়েল।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা নির্বাচন অফিসার, আব্দুস সালাম, কামরুল হাসান সিদ্দিকী জুয়েলের পিতা আলহাজ্ব আবুল হোসেন, চাচা আক্তার হোসেন দুলাল, তার বড় ছেলে আকিব আবরার শাহারিয়ার, ছোট ছেলে স্বাহাতা জারাফ প্রমুখ।