আবুল কালাম আজাদ, বগুড়া অফিস : তৃতীয় ধাপে অনুষ্ঠিত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বগুড়া সদরের নুনগোলা ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকার প্রার্থী, বর্তমান চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন কমিটির সভাপতি আলীম উদ্দিনের জামানত বাজেয়াপ্ত হয়েছে। তাঁর প্রাপ্ত ভোট মাত্র ১২২টি।

জেলায় আরো ৪৫ জন চেয়ারম্যান প্রার্থী প্রয়োজনীয় সংখ্যক ভোট না পাওয়ায় তারা জামানত ফিরে পাবেন না। গত ২৮ নভেম্বর জেলার ২৭টি ইউনিয়নে ভোট গ্রহন করা হয়।

বগুড়া জেলা নির্বাচন অফিস জানায়, তৃতীয় ধাপের নির্বাচনে জেলার ধুনট, শাজাহানপুর ও সদর উপজেলার ২৭টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ভোট গ্রহন অনুৃষ্ঠিত হয়। নির্বাচনী আইনমোতাবেক প্রদত্ত ভোটের ৮ভাগের ১ ভাগ ভোট না পেলে ওই প্রার্থী জামানত ফিরে পাবেন না। সে হিসেবে ৪৬ জন চেয়ারম্যান প্রার্থী জামানত হারাবেন।

এর মধ্যে সদরের নুনগোলা ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে প্রদত্ত ভোট ১৩ হাজার ৯২২। এর মধ্যে নৌকা প্রতিকে ভোট পড়েছে ১২২টি। ওই নির্বাচনে বিজয়ী হয়েছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী আ’লীগের বহিস্কৃত নেতা বদরুল আলম (আনারস)। তাঁর প্রাপ্ত ভোট ৬ হাজার ৮৮৫। নিকটতম প্রতিদ্বন্দি ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি স্বতন্ত্র প্রার্থী শাহ মোঃ আব্দুর রশিদের (অটোরিকশা) প্রাপ্ত ভোট ৬ হাজার ৬৯৬।

এ ছাড়া ধুনট উপজেলার ১০ ইউনিয়নে ১২ জন, শাজাহানপুর উপজেলার ৯ ইউনিয়নে ২০ জন এবং ও সদর উপজেলার ৮ ইউনিয়নে আরো ১১ চেয়ারম্যান প্রার্থীর জামানত খোয়া গেছে। এর মধ্যে চরমোনাই পীরের ইসলামী আন্দোলনের দলীয় প্রার্থীসহ স্বতন্ত্র প্রার্থী রয়েছে।

বগুড়ার সিনিয়র জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মাহবুব আলম শাহ জানিয়েছেন, প্রদত্ত ভোটের ৮ভাগের ১ ভাগ ভোট না পেলে কোন প্রার্থী জামানত ফিরে পাবেন না।