বিভিন্ন মহলের শ্রদ্ধা নিবেদন ও শোক প্রকাশ

বগুড়া অফিস : বগুড়া প্রেসক্লাবের কোষাধ্যক্ষ ও বৈশাখি টেলিভিশনের বগুড়া জেলা প্রতিনিধি কমলেশ মোহন্ত শানু (৫৮) না ফেরার দেশে পাড়ি জমিয়েছেন। বৃহস্পতিবার (১৭ নভেম্বর) সকাল ১০ টা ৫৫ মিনিটে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান (শজিমেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় লাইফ সাপোর্ট খুল দিলে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি।

তিনি গত শুক্রবার (১১ নভেম্বর) রাত ১১টায় বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে সংবাদ সংগ্রহ শেষে ফেরার পথে শজিমেক হাসপাাতালের সামনের মহাসড়কে দ্রুতগামী নৈশকোচের ধাক্কায় মাথায় গুরুতর আহত হয়ে শজিমেক হাসপাতালে ভর্তি হন। অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় চিকিৎসকের পরামর্শে তাকে ইনসেনটিভ কেয়ার ইউনিটে (আইসিইউ) স্থানান্তর করা হয়। কিন্তু ৬ দিনেও তার জ্ঞান ফেরেনি।

সেখানে তাকে লাইফ সাপোর্টে রেখে চিকিৎসা দেয়া হয়। তিনি স্ত্রী ও এক ছেলে রেখে গেছেন।

বিকেলে শহরের ফুলবাড়ী শ্মশানে তাকে সমাহিত করা হয়। বৃহস্পতিবার (১৭ নভেম্বর) দুপুর ১২টায় তার লাশ বগুড়া প্রেসক্লাব চত্বরে নেয়ার পর সেখানে বগুড়া জেলা প্রশাসন, বগুড়া পৌরসভা , জেলা পুলিশ, বগুড়া প্রেসক্লাব, সাংবাদিকদের দুই ইউনিয়ন, জেলা ছাত্রলীগ, বিভিন্ন সামাজিত সাংস্কৃতিক সংগঠন ফুলেল শ্রদ্ধা জানান।

এ সময় লাশ সামনে রেখে সংক্ষিপ্ত শোক সভা অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় বগুড়া পৌরসবার মেয়র ও জেলা বিএনপির সভাপতি রেজাউল করিম বাদশা, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মাসুম আলী বেগ, জেলা এসপি সুদীপ চক্রবর্ত্তি, প্রেসক্লাবের সভাপতি মাহমুদুল আলম নয়ন, সাধারন সম্পাদক আমজাদ হোসেন মিন্টু, সিনিয়র সাংবাদিক মোজাম্মেল হক লালু, মাহবুব উল আলম টোকেন, রেজাউল হাসান রানু, আরিফ রেহমান, আবুল কালাম আজাদ সহ বিভিন্ন পেশার নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। তার মৃত্যুতে বগুড়া জেলা আ’লীগ, বিএনপি, বগুড়া প্রেসক্লাব, সাংবাদিক ইউনিয়ন বগুড়া, বগুড়া সাংবাদিক ইউনিয়ন সহ বিভিন্ন সংগঠন গভীর শোক প্রকাশ করেছেন।