বগুড়া অফিস : বিদেশে চাকুরীর প্রলোভন দেখিয়ে বিভিন্ন ব্যক্তির নিকট থেকে লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে বগুড়ার কাহালু উপজেলার আফজাল হোসেন খাঁন নামের এক ব্যক্তি। ভুক্তভোগীরা তার নামে ১১টি মামলা দায়ের করলে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে জেলে পাঠায়। জেল থেকে জামিনে মুক্ত হয়ে সে মামলার বাদীদের হুমকি প্রদান করছে বলে অভিযোগ ভুক্তভোগীদের।

মামলার বাদীগণ জানান, জেলার কাহালু উপজেলার বানিয়া দিঘি গ্রামের মৃত রমজান আলীর ছেলে আফজাল হোসেন খাঁন (৬০) গ্রামের সহজ সরল বেকার ছেলেদের বিদেশে পাঠানো ও চাকরি দেওয়ার কথা বলে বিভিন্ন সময়ে ১০-১২ জনের নিকট থেকে ত্রিশ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেন। সরকারী দলের নাম ভেঙ্গে সাধারন মানুষদের প্রতারিত করে সে।

জেলার দুপচাঁচীয়া উপজেলার দিঘি মনগইদ গ্রামের মৃত মোজাহার আলীর ছেলে আনছার আলী বলেন, ২০২১ সালে আমার ছেলেকে বিদেশ পাঠানোর জন্য আফজালকে দশ লক্ষ টাকা প্রদান করি। কিন্ত বিদেশ না পাঠিয়ে আমার পুরো টাকা আত্মসাৎ করেন। তাই নিরুপায় হয়ে তার নামে মামলা করলে সে গ্রেফতার হয়। রমজান মাসে জামিনে মুক্ত হয়ে পাল্টা আমাকে দেখিয়ে নেবে মর্মে হুমকি প্রদান করেছে।

দুপচাঁচিয়া থানার এস আই রাসেল জানান, মামলার তদন্ত কালে আফজাল হোসেন বিভিন্ন সময়ে বাদী আনছারের নিকট থেকে ব্যাংকের মাধ্যমে টাকা গ্রহণ করেছে তার প্রমাণ পাওয়া গেছে। কাহালু উপজেলার আফজাল হোসেন ও সোহেল রানার ২০২২ সালে দায়েরকৃত দুটি মামলার এজহারেও দেখা যায় আফজাল খান বিদেশে লোক পাঠানোর নাম করে তাদের নিকট থেকে বিশ লক্ষ টাকা গ্রহণ করে।