বিএনপি বলেছে হয়রানী করতে গায়েবী মামলা      

বগুড়া অফিস : বগুড়ায় বিএনপি নেতাকর্মীদের নামে নাশকতার পরিকল্পনা ও বিষ্ফোরক আইনে আরো কয়েকটি মামলা করেছে পুলিশ। এসব মামলায় কয়েকজনকে গ্রেফতারও করা হয়েছে। সর্বশেষ খবর অনুযায়ী বগুড়া জেলায় ৯টি মামলা দায়ের হয়েছে। তবে এসব মামলায় যাদের সাক্ষী করা হয়েছে তারা ওই সব ঘটনা সম্পর্কে কিছুই জানেন না বলে জানা গেছে।

ধুনট সংবাদদাতা রাকিবুল ইসলাম জানিয়েছেন, ধুনট উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান একেএম তৌহিদুল ইসলাম মামুন সহ বিএনপির ৪৬ জনের নামে পুলিশ বাদী হয়ে বিষ্ফোরক আইনে মামলা দায়ের ও ২জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

ধুনট থানার এস আই রুহুল আমিন খান বাদী হয়ে বুধবার রাতে এ মামলা দায়ের করেন। এজাহারে ধুনট -শেরপুর সড়কের উল্লাপাড়া চাতালের নিকট বিএনপি নেতাকর্মীরা গত বুধবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে সরকার উৎখাতে নাশকতার পরিকল্পনা করে দুটি ককটেল বিষ্ফোরণ ঘটিয়ে আতংক সৃস্টি করে। এ ঘটনায় পুলিশ দুই আসামী বিএনপি নেতা রেজাউল করিম (৪৪) ও যুবদল নেতা উজ্জল হোসেনকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানান ওসি রবিউল ইসলাম।

সারিয়াকান্দি সংবাদদাতা রুবেল মন্ডল জানান, সারিয়াকান্দি থানা পুলিশ বাদী হয়ে বিএনপির ২৯ জনের নামে বিষ্ফোরক আইনে মামলা করেছে। থানার এসআই হোসেন আলী বাদী হয়ে বৃহস্পতিবার রাতে এ মামলা করেন।

এজাহারে বলা হয়েছে, গত বৃহস্পতিবার রাতে পৌর এলাকার সাহাপাড়ায় নাশকতার উদ্দেশ্যে বিএনপি নেতাকর্মীরা একটি ককটেল বিষ্ফোরন ঘটালে জনমনে আতংক সৃস্টি রহয়। অপরদিকে একই রাতে উপজেলা ফুলবাড়ী ইউনিয়নের কাটাখালী সরকারী প্রাইমারী স্কুল মাঠে বিএনপি নেতা কর্মীরা ২টি ককটেল বিষ্ফোরন ঘটায়। এ দুটি ঘটনায় বিএনপির ১৭ জনের নাম সহ আরো ১২ জনের নামে একটি মামলা করে। থানার ওসি রাজেস কুমার চক্রবর্ত্তি এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এ ছাড়া গত এক সপ্তাহে জেলার শেরপুর, শাজাহানপুর, সদর, কাহালু, নন্দীগ্রাম , দুপচাঁচিয়া ও আদমদিঘি উপজেলায় পুলিশ ও স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতারা বাদী হয়ে বিএনপির সাড়ে ৩ হাজার নেতাকর্মীর নামে শুক্রবার পর্যন্ত ৯টি নাশকতার মামলা করেছে। ইতোমধ্যে এসব মামলায় ২৫-৩০ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

এদিকে জেলাব্যাপী একের পর এক মামলার প্রতিবাদ জানিয়ে জেলা বিএনপির সভাপতি রেজাউল করিম বাদশা এক সংবাদ সম্মেলনে এসব মামলাকে গায়েবী হিসেবে দাবী করে বলেছেন, পুলিশ ও আ’লীগ ঘটনা সাজিয়ে গায়েবী মামলা দিয়ে হয়রানী করছে।