আব্দুল ওয়াদুদ, বগুড়া : বগুড়ার শেরপুর উপজেলায় ছুটিতে বাড়ি এসে বিষ পান করে রহিমা খাতুন (২০) নামে এক নারী পুলিশ কনস্টেবল আত্মহত্যা করেছেন

রহিমা খাতুন বগুড়া জেলার শেরপুর থানার চন্ডিশ্বর গ্রামের রফিকুল ইসলামের মেয়ে। এবং কক্সবাজার ৮ম আমর্ড ব্যাটালিয়ন পুলিশে (এপিবিএন) কর্মরত ছিলেন।

বুধবার (১২ জানুয়ারী) সন্ধ্যা ৭টার দিকে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। এর আগে আজই সকাল সাড়ে ১১টায় দিকে বিষ পান করে।

জানা গেছে, ১০ দিনের ছুটি নিয়ে রহিমা খাতুন গত ৫ জানুয়ারী শেরপুরে গ্রামের বাড়িতে আসেন। বুধবার বেলা সাড়ে ১১ টার দিকে রহিমা খাতুন বাড়িতেই বিষ পান করে অসুস্থ হয়ে পড়েন। পরিবারের লোকজন তাকে শেরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

সেখানে অবস্থা অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সন্ধ্যা ৭টার দিকে রহিমা খাতুন মারা যান। তার চাচা রুবেল মিয়া জানান একই ব্যাটালিয়ানে কর্মরত পুলিশ কনস্টেবল হৃদয়ের সাথে রহিমার প্রেমের সম্পর্ক ছিল।

প্রেমঘটিত বিষয়ে তাদের মধ্যে ঝামেলা হলে রহিমা বিষপান করে।