বগুড়া অফিস : বগুড়ার শেরপুরে শিনু এগ্রো ইন্ডাস্ট্রিতে অবৈধভাবে মজুদের অভিযোগে অভিযান চালিয়ে ৪ হাজার ৪০০ টন ধান-চাল জব্দ করেছে খাদ্য অধিদপ্তর। উপজেলার গাড়ীদহ এলাকায় দুপুর ১২ টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত এ অভিযান চালানো হয়।

জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক কাজী সাইফুদ্দিন বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, শেরপুরের শফিকুল ইসলাম (শিরু) অটোরাইচ মিল ও গুদাম ভাড়া নিয়ে অনেক দন ধরে ধান-চালের ব্যবসা করে আসছেন। এখানে এসিআই কোম্পানির ধান-চাল অবৈধভাবে মজুদ করা হয়েছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে বেলা ১২টা থেকে ইন্ডাস্ট্রির মিল ও গুদামে অভিযান চালানো হয়।

এ সময় অনুমোদনহীন ওই প্রতিষ্ঠানে ২ হাজার ৫৮০ টনের বেশি ধান ও ১ হাজার ৯০০ টন চাল মজুদ করা হয়।

খাদ্য নিয়ন্ত্রক আরও জানান, গুদাম ও মিলে থাকা ধান- চাল মজুদের কোন অনুমতি নেই এসিআই কোম্পানির।

অবৈধভাবে ধান-চাল মজুদের অভিযোগে কয়েক মাস আগেই একই প্রতিষ্ঠানকে ৬ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছিল। এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এসিআই বগুড়া জোনের সিনিয়র কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, আমাদের ধান ও চাল মজুদের সরকারি অনুমতি রয়েছে ।

এর আগে অবৈধভাবে ধান-চাল মজুদের অভিযোগে গত ২৩ ডিসেম্বর বগুড়া সদর উপজেলার মানিকচক এলাকায় মেঘনা গ্রুপের ২ হাজার ৫০০ টন ধান জব্দ করা হয়। এ ঘটনায় বিশেষ ক্ষমতা আইনে বগুড়া সদর থানায় মেঘনা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজারের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়।