বগুড়া প্রতিনিধি : বগুড়ায় দুর্বৃত্তদের গুলিতে মোজাফ্ফর হোসেন (৫৫) ওরফে বাবা হুজুর নামের এক মাদ্রাসা পরিচালক নিহত হয়েছেন। আজ মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে বগুড়া-নাটোর মহাসড়কের শাজাহানপুর উপজেলার বীরগ্রাম কৃষি কলেজের সামনে সিএনজি চালিত অটোরিক্সা থামিয়ে তাকে দূর্বৃত্তরা গুলি করে পালিয়ে যায়।

তাকে উদ্ধার করে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তবরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন।

নিহত মোজাফ্ফর নাটোর জেলার সিংড়া উপজেলার সুকাশ গ্রামের মৃত সায়েদ আলীর ছেলে। তিনি বগুড়া শহরের নিশিন্দারা মধ্যপাড়া দারুল হেদায়া কওমী মাদ্রাসার পরিচালক।

পুলিশ জানায়, মাদ্রাসা শিক্ষক মোজাফ্ফর হোসেন একটি সিএনজিচালিত অটোরিকশায় অন্যান্য যাত্রীদের সাথে বগুড়া শহরের দিকে যাচ্ছিলেন। পথিমধ্যে জোড়া কৃষি কলেজের সামনে মোটরসাইকেলযোগে আসা দুর্বৃত্তরা অটোরিকশার গতিরোধ করে। এরপর তারা মোজাফ্ফর হোসেনকে গুলি করে পালিয়ে যায়। তার বুকে একাধিক গুলির চিহ্ন দেখা গেছে।

বগুড়ার শাজাহানপুর থানার এসআই অব্দুর রাজ্জাক জানান, নিহতের সাথের দুই যাত্রীকে এ ব্যাপারে জিঙ্গাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে।

নাটোরের সিংড়া থানার ওসি নুর-এ আলম সিদ্দিকী জানান, মোজাফফর পেশায় কবিরাজ। তিনি বগুড়া শহরে একটি কওমি মাদ্রাসার প্রধান ছিলেন। তাঁর দুই স্ত্রী ও দুই পক্ষের দুই কন্যা সন্তান রয়েছে। প্রথম স্ত্রী সিংড়ার সুকাশ গ্রামেই থাকেন। দ্বিতীয় স্ত্রীকে নিয়ে মোজাফফর বগুড়া শহরের নিশিন্দারা এলাকায় বসবাস করতেন।

বগুড়া সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ফয়সাল মাহমুদ বলেন, চলন্ত সিএনজির গতিরোধ করে যাত্রী এবং চালকের সামনেই মোজাফফর নামে ওই ব্যক্তিকে গুলি করে হত্যা করেছে দুর্বত্তরা। কারা কী কারণে তাঁকে এভাবে প্রকাশ্যে গুলি করে হত্যা করেছে তা এখনও নিশ্চিত হওয়া যায়নি।