বকশীগঞ্জ (জামালপুর) প্রতিনিধি : জামালপুরের বকশীগঞ্জে অবহেলিত বিলের পাড় খালের ওপর ব্রিজ নির্মাণের দাবি জানিয়েছেন স্থানীয় এলাকাবাসী সহ ৫ গ্রামের মানুষ।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বকশীগঞ্জ উপজেলার সাধুরপাড়া ইউনিয়নের অবহেলিত বিলের পাড় গ্রাম। বিলের পাড় গ্রাম থেকে বাংগালপাড়া পর্যন্ত রাস্তার মাঝে একটি খাল রয়েছে। এই খালটি এখন গলার কাঁটা হয়ে দাড়িয়েছে প্রায় ৫ টি গ্রামের মানুষের জন্যে।

স্বাধীনতার ৫০ বছর পার হলেও এই খালের ওপর একটি ব্রিজ নির্মাণ করা সম্ভব হয় নি। বিলেরপাড় গ্রামের খালের পশ্চিম পাশের মানুষ গুলোকে বাজার ঘাটে যেতে হলে এই খাল পার হয়ে যেতে হয়। চলাচল, স্কুল, কলেজ , ফসলের বাজারজাত করা সহ গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় যেতে এই গ্রামের মানুষকে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হয়।

বর্ষার সময় নৌকা দিয়ে পারাপার হতে হয় বিলের পাড়, বাংগাল পাড়া, কতুবেরচর, ডেরুরবিল, বালুগাও , শেকপাড়া সহ ৫ গ্রামের মানুষকে। বিলের পাড় গ্রামের এই খালটির কারণে দুভাগ করে দিয়েছে গ্রামের মানুষকে। এই গ্রামের দুটি রাস্তার মধ্যে একটি রাস্তা এখনো পাকা হয়নি।

এই গ্রামের হাজী কিংরাজের বাড়ি হতে গ্রামের শেষ মাথা ফয়জুদ্দিনের বাড়ি পর্যন্ত রাস্তাটিতে এখনো উন্নয়নের ছোঁয়া লাগে নি। ২০০৫ সালের বেসরকারি সংস্থা এসডিএফ এর উদ্যোগে মাটি ভরাট করে নির্মাণ করা হলে বিগত কয়েক বছরে বন্যায় রাস্তাটি সম্পূর্ণ বিধ্বস্ত হয়ে গেছে। চলাচলের অযোগ্য হয়ে পড়েছে এই রাস্তা দিয়ে। তার ওপর বিলের পাড় খালে ব্রিজ না থাকায় একটি অবহেলিত গ্রামে পরিণত হয়েছে।

রাস্তা ঘাট, ব্রিজ না থাকায় শিক্ষা দীক্ষা, অর্থনীতিতে পিছিয়ে রয়েছেন এই গ্রামের মানুষ। এই খালের ওপর একটি ব্রিজ নির্মাণ করা হলে বিলের পাড় সহ স্থানীয় এলাকার মানুষের দুর্ভোগ যেমন কমবে তেমনি জীবনমানের উন্নয়ন সহ সামাজিক মর্যাদা বৃদ্ধি পাবে।

খালের পশ্চিম পাশে অবস্থিত বিলের পাড়া গ্রামের অটো রিকশা চালক আবদুল মজিদ জানান, আমাদের গ্রামের খালের ওপর ব্রিজ না থাকায় উপজেলা শহরে যেতে হলে কমপক্ষে ৫ কিলোমিটার ঘুরে যেতে হয় ফলে অর্থ ও সময় দুটোই অপচয় হয়।

একই গ্রামের কৃষক সাত্তার মিয়া জানান, আমাদের উৎপাদিত ফসল হাটে বিক্রি করতে হলে ডাবল ভাড়া ও অনেক রাস্তা ঘুরে নিয়ে যেতে হয়। একটি ব্রিজ নির্মিত হলে সেই দুর্ভোগ আর পোহাতে হবে না।

কলেজ ছাত্র মোহাম্মদ রুবেল জানান, জন্মের পর থেকে দেখে আসছি এই গ্রামে তেমন কোন উন্নয়ন ঘটেনি। তার ওপর এই খালে ব্রিজ না থাকায় আমরা বিভক্ত হয়ে পড়েছি। তাই অবিলম্বে এই খালের ওপর একটি ব্রিজ নির্মাণ করা হোক।

সাধুরপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাহমুদুল আলম বাবু জানান, এই গ্রামটি অন্যান্য গ্রাম থেকে অনেক পিছিয়ে রয়েছে। তবুও ইউনিয়ন পরিষদ থেকে এই গ্রামের একটি রাস্তার ঢালাই কাজ শুরু করা হয়েছে। তবে জনদুর্ভোগের কথা চিন্তা করে এই খালের ওপর ব্রিজ নির্মাণ করা প্রয়োজন।

বকশীগঞ্জ স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর (এলজিইডি) উপজেলা প্রকৌশলী মো. শামছুল হক জানান, দ্রুত সময়ের মধ্যে বিলের পাড় গ্রামের খালের ওপর ব্রিজ নির্মাণের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।