মোঃ কামরুজ্জামান ভূঁইয়া, নোয়াখালী : নোয়াখালীর সোনাইমুড়ীতে বিয়ের অনুষ্ঠানে মেয়েদের ছবি তুলতে বাধা দেওয়ায় হামলায় নারীর মৃত্যুর ঘটনায় ২ জনকে আটক করেছে পুলিশ।

আটককৃতরা হলো, ৮নং সোনাপুর ইউনিয়নের ধন্যপুর গ্রামের রফিক উল্যাহর ছেলে মো.রাজিব (১৮), একই এলাকার শাহ আলমের ছেলে মো. মোয়াজ্জেম হোসেন শাওন (২০)।

সোনাইমুড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) গিয়াস উদ্দিন আটকের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, সোমবার রাতে পুলিশ অভিযুক্ত দুই যুবককে আটক করে। আটককৃত আসামিদের গ্রেফতার দেখিয়ে বিচারিক আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হবে।

উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার উপজেলার হীরাপুর গ্রামের মোস্তফা চেয়ারম্যানের বাড়ির আবুলকালামের মেয়ের বিয়ের অনুষ্ঠানে কনের গোসলের ছবিসহ মেয়েদের ছবি তুলতে চায় একই বাড়ীর মোশারেফ নামে এক বখাটে যুবক। এতে বাধা দেয় আবুল কালামের ছেলে সহ অন্যান্যরা। বর পক্ষ কনে নিয়ে চলে যাওয়ার পর রাতে এ নিয়ে মোশারেফের সাথে কথাকাটি হয়। একপর্যায়ে মোশারেফ ১০/১২ জন বহিরাগত সন্ত্রাসী নিয়ে এসে কালামের ছেলে মাহফুজুর রহমান (২৬), নুরনাহার (৬০), আবুলকালাম (৪৯), কুলসুম আক্তার (১৯) সহ অন্তত ১০ জনকে কুপিয়ে জখম করে। এদের মধ্যে মাহফুজুর রহমান ও নুরনাহারকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে নুরনাহারের অবস্থার অবনতি ঘটলে তাকে মূমর্ষ অবস্থায় ঢাকায় প্রেরণ করা হয়। শনিবার রাতে তিনি ঢাকার একটি হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেন।