ঘিওর (মানিকগঞ্জ) প্রতিনিধি : মানিকগঞ্জের ঘিওরে নৌভ্রমনে নৌকা থেকে পড়ে নিখোঁজ কলেজ শিক্ষার্থীর লাশ ১৮ ঘন্টা পর উদ্ধার হয়েছে। বৃহস্পতিবার তরা এলাকায় কালীগঙ্গা সেতুর পাদদেশে মরদেহ ভাসতে দেখে স্থানীয়রা পুলিশে খবর দেয়। পরে ঘিওর থানা পুলিশ ও শিবালয় নৌ পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মানিকগঞ্জ সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেন।

নিহত বর্ষন ইসলাম (১৮) বন্ধুদের সাথে নৌ ভ্রমণে গিয়ে ঘিওর উপজেলার তরা এলাকায় কালিগঙ্গা নদীতে পড়ে গত বুধবার বেলা বারোটায় নিখোঁজ হন। সে মানিকগঞ্জ শহরস্থ পশ্চিম সেওতা এলাকার মোঃ রবিউল ইসলামের ছেলে। বর্ষন মানিকগঞ্জ সরকারী দেবেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের একাদশ শ্রেণীর বিজ্ঞান বিভাগের প্রথম বর্ষের ছাত্র ছিল।

বৃহস্পতিবার সকাল থেকে নৌ ফায়ার সার্ভিসের বিশেষ ডুবুরীদল নদীতে উদ্ধার অভিযান চালান। বিকেল সাড়ে পাঁচটায় স্থানীয়দের সহায়তায় তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এ কাজে ঘিওর থানা পুলিশ, নিখোঁজের স্বজন ও স্থানীয় বাসিন্দারা সহায়তা করেন।

পাটুরিয়া নৌ থানার ওসি মোঃ আবু বকর সিদ্দিক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত কোন মামলা হয়নি। মাথা ও গলায় কাটা ও রক্তান্ত মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। ঘটনার তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

র‌্যাব-৪ এর মানিকগঞ্জ অঞ্চলের কমান্ডার লেফটেন্যান্ট কমান্ডার আরিফ হোসেন জানান, বিকেলে তরা ব্রীজের নিচে বর্ষণের মরদেহ দেখতে পায় স্থানীয়রা। খবর পেয়ে পৌ-পুলিশ ও র‌্যাবের টিম ঘটনাস্থল থেকে মরদেহটি উদ্ধার করে। মরদেহটি ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে। তিনি আরো জানান, বর্ষণের মুখে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তবে মৃত্যুর বিষয়টি ময়নাতদন্তের পরে জানা যাবে।