নোয়াখালী প্রতিনিধি : নোয়াখালীর চাটখিলে প্রেমে ব্যর্থ হয়ে এক কিশোরী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

নিহত মারুফা আক্তার (১৬) উপজেলার নাটেশ্বর ইউনিয়নের ৯নম্বর ওয়ার্ডের পশ্চিম মির্জানগর গ্রামের অজি বাড়ির মহিন উদ্দিনের মেয়ে। সে ঢাকার একটি বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী ছিল।

শুক্রবার সন্ধ্যায় উপজেলার নাটেশ্বর ইউনিয়নের ৯নম্বর ওয়ার্ডের পশ্চিম মির্জানগর গ্রামের অজি বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে একই দিন রাত পৌনে ১২টার দিকে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করে।

সোনাইমুড়ী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মোহাম্মদ ইব্রাহীম খলিল বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি আরও জানান, নিহত মারুফা পরিবারের সাথে ঢাকায় থাকত। ঢাকায় তার সাথে ফয়সল নামে এক ছেলের সাথে প্রেমের সম্পর্ক ছিল। সম্পর্কের জের ধরে গত ৩০ ডিসেম্বর সে তার প্রেমিকার সাথে পালিয়ে যায়। পরে তার বাবা এ ঘটনায় ঢাকার বংশাল থানায় একটি মামলা করে। মামলার জের ধরে গত ৩ জানুয়ারি মারুফাকে পুলিশ উদ্ধার করে। এরপর আইনি প্রক্রিয়া শেষে তাকে তার পরিবারের জিম্মায় দেওয়া হয়।

এর মধ্যে গ্রামের বাড়িতে তার দূর সম্পর্কের এক দাদা মারা যায়। এ জন্য পরিবারের সদস্যরা তাকে নিয়ে গ্রামের বাড়িতে আসে। শুক্রবার সন্ধ্যায় তাদের পুনরায় ঢাকা ফিরে যাওয়ার কথা ছিল।

কিন্তু পরিবারের সদস্যদের অজান্তে নিজ শয়নকক্ষে সে আড়ার সাথে ওড়না পেঁচিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে। ধারণা করা হচ্ছে, প্রেমঘটিত বিষয় নিয়ে হতাশায় ও ক্ষোভে আত্মহত্যা করে সে।

পরিদর্শক মোহাম্মদ ইব্রাহীম খলিল বলেন, সুরতহাল রিপোর্ট শেষে ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। পরবর্তীতে এ ঘটনায় আইনগত প্রদক্ষেপ নেওয়া হবে।