এম এম হারুন আল রশীদ হীরা, নওগাঁ : নওগাঁর পোরশায় দিনদুপুরে পাঁচটি ছাগল চুরি করে বিক্রি করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। চোরের দল ছাগলগুলো চুরি করে বস্তায় ভরে নিয়ে যায়। পরে উপজেলার গাংগুড়িযা হাটে বিক্রি করেছে বলে দাবি করা হয়। মঙ্গলবার বিকেলে চুরির এ ঘটনাটি ঘটে। ছাগলগুলোর দাম প্রায় ৭০/৮০ হাজার টাকা।

আটককৃতরা হলো, বাঁশবাড়িয়া গ্রামের মৃত মোজার ছেলে ঈসমাইল হোসেন কালু(৩২) ও কদুকোনা (গোবরাকুড়ি) গ্রামের শরিফ উদ্দিনের ছেলে ইব্রাহিম হোসেন (৩৫)।

স্থানীয়রা জানান, পোরশা হাটখোলা এলাকার মামুন শাহ্ চৌধুরীর এ-র ছেলে আরিফ হোসেন শাহ্ চৌধুরীর তিনটি ছাগল ও বাঁশবাড়িয়া গ্রামের মৃত মোসলেম আলীর ছেলে আল আমিনের দুটি ছাগল চুরি করে বস্তায় ভরে নিয়ে যায়। পরে সুবিধাজনক সময়ে হাটে ছাগলগুলো কম দামে বিক্রি করে ও-ই সংঘবদ্ধ চোরের দল। এর সাথে আরো অনেকে জড়িত আছে বলে তারা আরো জানান।

ঘটনায় দুই চোরকে আটক করেছে স্থানীয়রা। এ সময় তাদেরকে গণধোলাই দিয়ে রফিকুল ইসলামের বাড়ির বারান্দায় খুঁটির সাথে দড়ি দিয়ে বেঁধে রাখা হয়।

এ সময় আটক চোরদের দেখতে সেখানে প্রচন্ড ভীড় জমে যায়। পরে তারা ছাগল চুরির বিষয়টি স্বীকার করে বলে তাদের সাথে রবিউল ও বেলালসহ আরো অনেকে জড়িত আছে। পরে স্থানীয় মহিলা মেম্বার তারামন বিবিকে খবর দিয়ে তার জিম্মায় দেয়া হয়। এ রির্পোট লেখা পর্যন্ত থানা পুলিশে সোর্পদের প্রন্তুতি চলছিল।