মহিউদ্দিন রানা, ঈশ্বরগঞ্জ (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি : ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) এর উপ-পরিদর্শক (এস আই) পরিচয়ে আর্থিক প্রতারণার অভিযোগে আব্দুল কাইয়ুম অনিক নামে এক প্রতারককে গ্রেপ্তার করেছে পিবিআই।

বৃহস্পতিবার ৫ জানুয়ারি গভীর রাতে অভিযান চালিয়ে উপজেলার উচাখিলা ইউনিয়ন থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃত আসামিকে শুক্রবার ৬ জানুয়ারি বিজ্ঞ আদালতে পাঠানো হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ময়মনসিংহ জেলার পুলিশ সুপার জনাব মো. রকিবুল আক্তার।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানান, আব্দুল কাইয়ুম অনিক নামে ওই প্রতারক নিজেকে পিবিআইয়ের উপ-পরিদর্শক (এস আই) ফারদিন আহম্মেদ পরিচয়ে দিয়ে উপজেলার উচাখিলা ইউনিয়নের মো. আব্দুর রাশেদ নামে এক ব্যাক্তিকে কল দেন। পরে আব্দুর রাশেদকে জানানো হয় পিবিআইয়ে তার একটি মামলা রয়েছে এবং তা পরোয়ানাভুক্ত হয়েছে। ৫০ হাজার টাকা দিলে মামলাটি এখানেই শেষ করে দেওয়া হবে।

এ অবস্থায় মো. আব্দুর রাশেদ নামে ওই ব্যক্তি ময়মনসিংহ পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) এর অফিসে যোগাযোগ করে জানতে পারেন এসআই ফারদিন আহম্মেদ নামে কোন কর্মকর্তা পিবিআইয়ে নেই। এ ছাড়াও তার নামে কোন মামলাও নেই। পরে বিষয়টি নিয়ে পিবিআইয়ে একটি লিখিত অভিযোগ দেন আব্দুর রাশেদ। পরে তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে অভিযান চালিয়ে প্রতারক চক্রের প্রধান আব্দুল কাইয়ুম অনিককে গ্রেপ্তারকরে পিবিআই।

এ বিষয়ে ময়মনসিংহ জেলার পুলিশ সুপার জনাব মো. রকিবুল আক্তার বলেন, ‘পিবিআইয়ের নামে প্রতারণা, এটি একটি দুঃসাহসিক ও চাঞ্চল্যকর ঘটনা। প্রতারক চক্রের অন্যতম প্রধান আসামী আব্দুল কাইয়ুম অনিককে গ্রেপ্তার করা হয়। প্রতারক চক্রের বাকি সদস্যদেরকেও চিহ্নিত করা হয়েছে। খুব দ্রুত সবাইকে আইনের আওতায় আনা হবে’।

তিনি আরও বলেন, ‘এই মামলার প্রতারক চক্রের সদস্যরা বৃহত্তর ময়মনসিংহে বিভিন্ন পাবলিক/সরকারি চাকরির পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁস, জাল-জালিয়াতিসহ ডিজিটাল প্রতারণার সাথে জড়িত। তাদের নামে আরও প্রতারণার মামলা রয়েছে’।