এম. মনিরুজ্জামান, রাজবাড়ী প্রতিনিধি : দক্ষিণ বঙ্গের প্রবেশদ্বার খ্যাত দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া ফেরিঘাটের পাটুরিয়ার ৫নং ফেরিঘাটের শাহ আমানত নামে একটি রো-রো ফেরি গাড়ি আনলোডের সময় হেলে যায়। এতে সতেরটি ট্রাক নদীতে পড়ে যায়।

বুধবার (২৭ অক্টোবর) সকাল ১০টায় এই দুর্ঘটনা ঘটে। এতে ফেরি চলাচলের বিঘ্ন ঘটায় দৌলতিয়া প্রান্তে সৃষ্টি হয়েছে তীব্র যানজটের।

আরিচা ফেরি স্টেশনের পরিদর্শক মুজিবুর রহমান জানান, পানির নিচ থেকে এখন পর্যন্ত পাঁচটি কাভার্ডভ্যান ও একটি মোটরসাইকেল পাওয়া গিয়েছে। শেষ গাড়ি ও যাত্রী উদ্ধার না হওয়া অবধি উৎদ্ধার তৎপরতা চলতে থাকবে।

দৌলতদিয়া প্রান্ত থেকে রবিন নামে এক হকার জানান, তিনি ওই ফেরিতে ছিলেন, ফেরির নিচের দিকের একটি পার্ট ভেঙ্গে পানি প্রবেশ করতে থাকলে ফেরিটি এক দিকে হেলে যায় এবং দুর্ঘটনা ঘটে।

বুধবার বিকালে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, দৌলতদিয়া ফেরিঘাটের জিরো কিলোমিটার থেকে প্রায় ৫ কিলোমিটার পর্যন্ত পণ্যবাহী ট্রাকোর দীর্ঘ সারি রয়েছে এবং প্রায় আড়াই কিলোমিটার অংশ জুড়ে যাত্রীবাহী বাসের যানজট রয়েছে।

এদিকে সোহাগ পরিবহনের যাত্রী মেহজাবিনের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, “প্রায় ৪ ঘণ্টা ঘাট এলাকায় এসে বসে আছি, কিন্তু কখন ফেরিতে উঠতে পারব জানি না। এদিকে শুনলাম ওপাশে নাকি একটি ফেরি উল্টে গেছে।”

কাভার্ডভ্যান চালক সাদ্দাম জানান, “এখন কবে বা কখন যে ফেরিতে উঠত পারব জানা নাই।”

বিআইডাব্লিউটিসি কর্মকর্তা জামাল হোসেন জানান, পাটুরিয়া ফেরি ঘাটের ৫নং ঘাট কখন সচল হবে তা ঠিক ভাবে বলা যাচ্ছে না। ততক্ষণ পর্যন্ত এই পাশে যানবাহনের জট থাকবে।