নোয়াখালী প্রতিনিধি : নোয়াখালীর বেগমগঞ্জের উত্তর নাজিরপুর ইসলামিয়া আরাবিয়া মাদ্রাসার ছাত্র মাহমুদুল হাসান (১৬) নিখোঁজ রয়েছে।

বৃহস্পতিবার (৪ আগস্ট) দুপুরের দিকে নিখোঁজ ছেলের সন্ধান পেতে ভিকটিমের মা আছিয়া খাতুন বেগমগঞ্জ মডেল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন। যাহার জিডি নং-২২৩। গত তিন দিন ধরে নিখোঁজ ছেলের খোঁজে মরিয়া পরিবারের সদস্যরা।

ভুক্তভোগীর পরিবার জানায়, নিখোঁজ মাহমুদুল হাসান বেগমগঞ্জ উপজেরার উত্তর নাজিরপুর ইসলামিয়া আরাবিয়া মাদ্রাসার মোতাফার রেকার ছাত্র। গত মঙ্গলবার (২ আগস্ট) বিকেল ৪টার দিকে মাদ্রাসা থেকে বাড়ি যাওয়ার কথা বলে বের হয়ে যায়।

ঘটনার পরদিন বুধবার ছেলে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছে বলে ফোন দেয় একটি প্রতারক চক্র। চিকিৎসার জন্য মোটা অংকের টাকা দাবি করে পরিবারের নিকট। নিরুপায় হয়ে ভিটটিমের পরিবার কিছু টাকা বিকাশের মাধ্যমে পাঠায়।

প্রতারক চক্রের তথ্যের ভিত্তিতে ব্রাহ্মণবাড়িয়া কসবা হাসপাতালে গিয়েও ছেলের কোন সন্ধান পায়নি। পরে প্রতারক চক্রের ব্যবহৃত দুটি মোবাইল নম্বর বন্ধ পাওয়া যায়।

ভিকটিমের বাড়ি নোয়াখালী সদর উপজেলার করমূল্যা বাজারের দক্ষিণে পশ্চিম শুল্যকিয়া গ্রামে। তার পিতার নাম মাইন উদ্দিন।

এদিকে ছেলেকে হারিয়ে পরিবারের সদস্যরা দিশেহারা হয়ে পড়েছে। তারা দ্রুত ছেলের সন্ধ্যান চান।

স্থানীয় মেম্বার রফিক উল্যাহ এলাকাবাসী জানান, ছেলেটি মাদ্রাসা থেকে নিখোঁজ হয়েছে নাকি কেউ তাকে অপহরণ করে পরিবার থেকে মুক্তিপণ আদায় করছে এই নিয়ে যথেষ্ট সন্দেহ সৃষ্টি হয়েছে।

বেগমগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) শফিকুল ইসলাম জানান, এ ঘটনায় থানায় জিডি হয়েছে। দ্রুত বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।