নেত্রকোনা প্রতিনিধি : নেত্রকোনা-৩ (কেন্দুয়া-আটপাড়া) আসনের এমপি অসীম কুমার উকিলের সাথে বন্যার্তদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করতে গিয়ে আকস্মিক হার্ট এ্যাটাকে মারা যান আবির আহমেদ খান রুজেল নামে এক আওয়ামী লীগ কর্মী।

রুজেল উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক।

আবির আহমেদ খান রুজেল হার্ট এ্যাটাকে আক্রান্ত হলেও সাথে সাথে তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার কোনো গাড়ির ব্যবস্থা করা যায়নি। এমনকি সেখানে এমপি’র গাড়িসহ আরো ৪/৫টি গাড়ি থাকলেও রুজেলকে নিয়ে হাসপাতালে যাওয়ার মতো কোনো গাড়ি পাওয় যায়নি। এ নিয়ে নেতাকর্মী ও সাধারণের মাঝে বিরূপ প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে। রুজেল উপজেলার চিরাং ইউনিয়নের বাট্টা গ্রামের আওয়ামী লীগ নেতা মৃত মানিক মিয়ার ছেলে এবং আওমী লীগ নেতা পাবেল আহমেদ খানের ছোট ভাই।

রোববার দুপুরে উপজেলার নওপাড়া উচ্চ বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে এমপি অসীম কুমার উকিলের সাথে তার সহযোগী হয়ে ত্রাণ বিতরণকালে এই আকস্মিক এই মৃত্যুর ঘটনা ঘটে। এ সময় এমপি’র স্ত্রী অপু উকিলসহ অন্যান্য নেতাকর্মীগণ উপস্থিত ছিলেন।

সেখানে ত্রাণ বিতরণকালে এমপি’র সহযোগী রুজেল আকস্মিক অসুস্থ হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়লে জরুরিভাবে হাসপাতালে নেয়ার জন্য এমপি’র গাড়ি চওয়া হলে অসম্মতি জানানো হয়। তখন সেখানে কোনো যান না পাওয়ায় শেষে বাধ্য হয়ে তাকে ভাড়া করা একটি ইজিবাইকে করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

ওইদিন বিকেলে রুজেলের বড় ভাই পাবেল আহমেদ খান দুঃখ প্রকাশ করে অশ্রুসিক্ত হয়ে বলেন, বড় দুর্ভাগ্য আমার ভাই অসুস্থ হয়ে পড়লে সেখানে এমপি’র ছাড়াও আরো ৪-৫টি গাড়ি থাকার পরেও কেউ গাড়ি না দেয়ায় সময় মত হাসপাতালে নিতে না পারায় সে অকালে মারা যায়। এ সময় অনেকেই অশ্রুশিক্ত হয়ে পড়েন এবং প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়।

জেলা কৃষক লীগের সাবেক সভাপতি কেশব রঞ্জন সরকার হার্ট এ্যাটাকে আক্রান্ত সাবেক ছাত্রলীগ নেতার মুমূর্ষু অবস্থায় হাসপাতালে নেয়ার জন্য এমপি’র গাড়ি না দেয়ায় তার ফেসবুক আইডিতে দেয়া এক স্ট্যাটাসে এ নিয়ে তীব্র প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন।