এম এম হারুন আল রশীদ হীরা, নওগাঁ : নওগাঁর নিয়ামতপুরে সিলিং ফ্যানের সাথে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে সামসুন্নাহার জুলি (২৩) নামে এক গৃহবধু আত্মহত্যা করেছেন। স্বামী ও শাশুড়ীর সাথে কথা কাটাকাটির কারণে অভিমান করে তিনি আত্মহত্যা করেন।

উপজেলার শ্রীমন্তপুর ইউনিয়নের রামকুড়া গ্রামে মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় এ ঘটনাটি ঘটে। তিনি ওই গ্রামের ফিরোজের স্ত্রী। খবর পেয়ে বুধবার ১৩ অক্টোবর সকালে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠায় পুলিশ। এ বিষয়ে সামসুন্নাহার জুলির শাশুড়ী ফেনসি বেগম থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা দায়ের করেন।

মামলা সূত্রে জানা যায়, ফিরোজ ও তার পরিবার পুরাতন বাড়ি ছেড়ে নতুন বাড়িতে ওঠার কারণে একটি মিলাদের আয়োজন করেন। এ কারণে বাড়িতে বিভিন্ন আত্মীয় স্বজন থাকায় সামসুন্নাহার একটু বিরক্ত হন।

এ নিয়ে মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় স্বামী ও শাশুড়ীর সাথে কথা কাটাকাটি হলে সে অভিমান করে নিজের শয়ন কক্ষে প্রবেশ করে এবং ওড়না দিয়ে সিলিং ফ্যানের সাথে পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেন। সামসুন্নাহারের দেড় বছরের একটি কন্যা সন্তান রয়েছে।

নিয়ামতপুর থানার পরিদর্শক (ওসি) হুমায়ুন কবির জানান, সামসুন্নাহারের শাশুড়ী এ বিষয়ে থানায় হাজির হয়ে একটি অপমৃত্যুর মামলা দায়ের করেন।