বগুড়া-৪ ও বগুড়া-৬ আসনে উপনির্বাচন

বগুড়া অফিস : আসন্ন উপ নির্বাচনে রিটার্নিং কর্মকর্তা বাতিলের পর নির্বাচন কমিশনে আপিল শুনানী শেষে বগুড়ার দুটি আসনে জমা দেয়া আলোচিত হিরো আলম প্রার্থীতা ফিরে পাননি। তবে দুইজন স্বতন্ত্র প্রার্থী প্রার্থীতা ফিরে পেয়েছেন।

তারা হলেন- বগুড়া-৪ আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী সাবেক বিএনপি নেতা কামরুল হাসান সিদ্দিকী জুয়েল ও বগুড়া-৬ আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী সাবেক আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুল মান্নান আকন্দ। তবে ওই দুই আসনের আরেক স্বতন্ত্র প্রার্থী বহুল আলোচিত আশরাফুল হোসেন ওরফে হিরো আলম আপিলেও প্রার্থীতা ফিরে পাননি। তবে তিনি উচ্চ আদালতে প্রার্থীতা ফিরে পেতে আপিল করবেন বলে জানা গেছে।

এ ছাড়া একই সাথে অবৈধ হওয়া বাকী ৯জনের কেউ প্রার্থীতা ফিরে পাননি এবং ১১ জনের কেউই প্রার্থীতা প্রত্যাহার করেননি বলে জানিয়েছে জেলা নির্বাচন কার্যালয়। উপনির্বাচনে মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ দিন রোববার বিকেলে বগুড়ার অতিরিক্ত জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. নজরুল ইসলাম এসব তথ্য জানান।

তিনি জানান, আপিলে প্রার্থীতা ফেরত পাওয়া দুই জন হলেন বগুড়া-৪ আসনের কামরুল হাসান সিদ্দিকী জুয়েল এবং বগুড়া-৬ আসনের আব্দুল মান্নান আকন্দ। এ নিয়ে বগুড়ার দুটি আসনে মোট ১৩ প্রার্থী নির্বাচনে অংশ নিচ্ছেন। এর মধ্যে বগুড়া-৪ আসনে পাঁচ জন প্রার্থী এবং বগুড়া-৬ আসনে আটজন সংসদ সদস্য পদে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করবেন।

গত ৮ জানুয়ারি উপনির্বাচনের প্রার্থী যাচাই-বাছাইয়ের দিন মনোনয়নপত্রে দেয়া ভোটার তালিকার তথ্যে গড়মিল থাকায় দুই আসনের মোট ১১ প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিল করেন রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা প্রশাসক সাইফুল ইসলাম। পরে এই ১১ প্রার্থী নির্বাচন কমিশনে আপিল করেন। রোববার সেই আপিলের শুনানি ছিল।

বগুড়া-৬ আসনে প্রার্থীতা ফিরে পাওয়া আব্দুল মান্নান আকন্দ বলেন, গত বুধবার (১১ জানুয়ারি) নির্বাচন কমিশনে আপিল করেছিলাম। আজ (রোববার) সেই আপিলের শুনানি ছিল। শুনানির পর আমার প্রার্থীতা ফিরে দেয়া হয়েছে। একই কথা বলেন বগুড়া-৪ (কাহালু-নন্দীগ্রাম) আসনের প্রার্থী কামরুল হাসান সিদ্দিকী।

হিরো আলম বলেন, আপিল শুনানিতে প্রার্থীতা ফিরে দেয়নি নির্বাচন কমিশন। তবে সমস্যা নেই। আমি হাইকোর্টে আপিল করবো। কাগজপত্র রেডি করছি।

ঘোষিত তফসীল অনুযায়ী- শূন্য হওয়া আসনগুলোতে নির্বাচন হবে আগামী ১ ফেব্রুয়ারি। সবকটি আসনে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) ভোটগ্রহণ করা হবে সকাল ৯টা তেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত।