কাজী খলিলুর রহমান, ঝালকাঠি প্রতিনিধি : করোনা দুঃসময়ে মৃতদেহ গোসল, জানাজা ও দাফন করায় দেশজুেড আলোচনায় আসা তিন মুফতির নেতৃত্বে গড়া মানবিক সংগঠন শাবাব ফাউন্ডেশনকে সংবর্ধনা দিয়েছে ঝালকাঠির নলছিটি উপজেলা প্রশাসন।

পাশাপাশি করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের বিনামূল্যে অক্সিজেন সেবা দেওয়ায় শামসুন্নাহার ফাউন্ডেশনকেও সংবর্ধিত করা হয়। মঙ্গলবার বিকেলে নলছিটি উপজেলা পরিষদের সভাকক্ষে এ সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রুম্পা সিকদার। দুটি সংগঠনকে ক্রেস্ট ও সদস্যদের মানবিক কাজের জন্য সনদপত্র প্রদান করা হয়।

জানা গেছে, ২০২০ সালে করোনা পরিস্থিতি শুরু হওয়ার পর নলছিটি উপজেলায় শাবাব ফাউন্ডেশন গড়ে ওঠে। চারজন মহিলা সদস্যসহ ৩৩ সদস্যের শাবাব ফাউন্ডেশন করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়া অর্ধশতাধিক নারী ও পুরুষ মৃতদেহ গোসল, জানাজা ও দাফন করে। শুধু নলছিটি উপজেলাতেই নয়, জেলার বিভিন্ন স্থানেও দাফন কাজ শুরু করেন তাঁরা।

অপরদিকে করোনা পরিস্থিতির দ্বিতীয় ঢেউ শুরু হওয়ার পর সামাজিক ও সাংগঠনিক ব্যক্তিত্ব শাহাদাত আলম ফকিরের গড়ে তোলা শামসুন্নাহার ফাউন্ডেশন বিনামূল্যে অক্সিজেন সেবা চালু করে। তাঁরা প্রায় অর্ধশত করোনা আক্রান্ত রোগীকে সেবা দিয়েছেন। দুটি সংগঠনই নিজস্ব অর্থায়নে করোনাকালীন মানবিক সেবা দিয়ে মানুষের পাশে দাঁড়ায়, নজরে আসে উপজেলা প্রশাসনেরও। যার পরিপ্রেক্ষিতে নলছিটি উপজেলা প্রশাসন সংগঠন দুটি ও এর সঙ্গে জড়িতদের সংবর্ধিত করার উদ্যোগ গ্রহণ করে।

নলছিটি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রুম্পা শিকদার বলেন, করোনা পরিস্থিতি শুরু হওয়ার পর থেকে এখন পর্যন্ত এই সংগঠন দুটি যেভাবে নিঃস্বার্থ সেবা দিয়েছে তা ইতিহাসে সাক্ষী হয়ে থাকবে।

অনুষ্ঠানে শাবাব ফাউন্ডেশনের সভাপতি মুফতি যাইনুল আবেদীন, সাধারণ সম্পাদক মুফতি হানযালা নোমানী, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও শামসুন্নাহার ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা শাহাদাত আলম ফকির, শাবাব ফাউন্ডেশনের সদস্য সাংবাদিক মু. মনিরুজ্জামান মুনির ও জামাল আব্দুন নাসের, নলছিটি প্রেসক্লাবের যুগ্ম সম্পাদক মিলন কান্তি দাস, নলছিটি উপজেলা ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক ও শামসুন্নাহার ফাউন্ডেশনের সদস্য দিদারুল আলম রায়হান প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। পরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রুম্পা সিকদার সংগঠন দুটির নেতৃবৃন্দের হাতে ক্রেস্ট ও সনদপত্র তুলে দেন।