বগুড়া অফিস : সারাদেশের ন্যায় বগুড়া জেলার ১০ উপজেলার ৩৫৪ পরিবারের মাঝে গৃহহীনদের জন্য প্রধানমন্ত্রীর উপহারের গৃহ হস্তান্তর করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভিডিও কনফারেন্সে আনুষ্ঠানিকভাবে গৃহ হস্তান্তর কার্যক্রম উদ্বোধন করেন।

একই সাথে দুপচাঁচিয়া ও নন্দীগ্রাম উপজেলা গৃহহীন মুক্ত ঘোষনা করেন তিনি। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী-মুজিববর্ষ উপলক্ষে আশ্রয়ন প্রকল্পের আওতায় ভূমিহীন ও গৃহহীনদের বাড়ি ঘর নির্মাণ করে দিচ্ছেন সরকার।

দুপচাঁচিয়ায় সুবিধাভোগীদের হাতে জমির দলিল হস্তান্তর করেন বগুড়ার জেলা প্রশাসক মো: জিয়াউল হক।

এ সময় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আব্দুর রশিদ, উপজেলা চেয়ারম্যান ফজলুল হক, উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তা সুমন জিহাদী উপস্থিত ছিলেন।

একই সময়ে বগুড়া সদর উপজেলা পরিষদ অডিটরিয়ামে ঘরের চাবি হস্তান্তর অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আবু সুফিয়ান সফিক, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সমর পাল, ভাইস চেয়ারম্যান ইকবাল হোসেন, উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভ‚মি) নুরুল ইসলাম, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মনিরুজ্জামান মনির। সদর উপজেলায় ৪০টি ঘর হস্তান্তর করা হয়।

বগুড়া জেলা প্রশাসক মোঃ জিয়াউল হক জানান, প্রত্যেক উপকারভোগীর জমিসহ গৃহ, জমির দলিল ও প্রধানমন্ত্রীর উপহারের সনদ হস্তান্তর করা হয়েছে। জেলায় এখনও ৪৮১ টি গৃহহীন পরিবারের তালিকা রয়েছে, তাদের ঘর নির্মান প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে। বগুড়া জেলাকে আগামী ডিসেম্বরের মধ্যে গৃহহীনমুক্ত জেলা হিসেবে ঘোষণা করা হবে।

কাহালু সংবাদদাতা জানান, কাহালু উপজেলায় এ পর্যায়ে ১২ টি পরিবারের মাঝে জমির দলিলসহ ঘরের চাবি হস্তান্তর করা হয়। উপজেলা অডিটরিয়ামে উপজেলা নির্বাহী অফিসার পাপিয়া সুলতানা এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বগুড়ার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আই সিটি) নিলুফা ইয়াসমিন, কাহালু উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আল হাসিবুল হাসান কবিরাজ সরুজ, পৌর মেয়র আব্দুল মান্নান,উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুর রশিদ লালু,রওশন আকতার, থানা অফিসার ইনর্চাজ আমবার হোসেন, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিসার আব্দুল জোব্বার সহ স্থানীয় সরকারী,বে-সরকারী অফিসের কর্মকর্তা,শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধান,বীর মুক্তিযোদ্ধ ও গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।