নন্দীগ্রাম (বগুড়া) প্রতিনিধি : বগুড়ার নন্দীগ্রামে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ৮ম শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে উপজেলা যুবলীগের সাবেক সহসভাপতি ও দলিল লেখক আব্দুস সালাম (৫০)কে আটক করা হয়েছে।

রোববার (৮ জানুয়ারি) রাতে নন্দীগ্রাম পৌর এলাকার ঢাকইর গ্রাম থেকে তাকে আটক করা হয়।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ঢাকইর গ্রামের সোলাইমান আলীর ছেলে উপজেলা যুবলীগের সাবেক সহসভাপতি ও দলিল লেখক আব্দুস সালাম ওই গ্রামের ৮ম শ্রেণির ছাত্রীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে দুই বছর ধরে ধর্ষণ করে আসছে।

রোববার সন্ধ্যা ৭টার দিকে তার বাড়িতে অপকর্মে লিপ্ত থাকা অবস্থায় গ্রামবাসী তাকে আটক করে। পরে থানা পুলিশের হাতে তাকে তুলে দেওয়া হয়।

ওই ছাত্রী জানায়, আমাকে বিয়ের কথা বলে অনেক বার ধর্ষণ করেছে আব্দুস সালাম। আমি অন্তঃসত্ত্বা হয়েছিলাম। সেটিও নষ্ট করায় সে। বিয়ের কথা বলে ৩ লাখ ৫০ হাজার টাকাও সে নিয়েছে। আমি এর বিচার চাই।

নন্দীগ্রাম থানার উপপরিদর্শক (এসআই) খাইরুল ইসলাম বলেন, আব্দুস সালামকে থানায় আনা হয়েছে। মামলার পস্তুতি চলছে।