নন্দীগ্রাম (বগুড়া) প্রতিনিধি : লালমনিরহাটের বুড়িমারী স্থলবন্দর থেকে পাথরভর্তি ট্রাকের গোপন বক্সে কৌশলে বিপুল পরিমাণ গাঁজা নিয়ে পাবনার উদ্দেশ্যে রওনা হয় মাদক কারবারিরা। তারা কৌশলী হলেও পুলিশের চোখ ফাঁকি দিতে পারেনি।

বগুড়া-নাটোর মহাসড়কের নন্দীগ্রাম পৌরসভা এলাকায় চেকপোস্ট বসিয়ে ট্রাক তল্লাশি করে ৫০ কেজি গাঁজা উদ্ধার করাসহ দুই মাদক কারবারিকে গ্রেফতার করে থানা পুলিশ। গতকাল রোববার দুপুরে নন্দীগ্রাম থানা হলরুমে আয়োজিত প্রেস ব্রিফিংয়ে বগুড়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) মো. আব্দুর রশিদ এ তথ্য জানান।

এ সময় থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আনোয়ার হোসেন উপস্থিত ছিলেন। গাঁজাসহ গ্রেফতারকৃতরা হলেন- পাবনা জেলার ঈশ^রদী উপজেলার চর মিরকামারী গ্রামের ইব্রাহিম প্রামাণিকের ছেলে তুহিন আলম (২৫) এবং একই উপজেলার দাশুড়িয়া খয়েরবাড়ি গ্রামের মৃত হাতেম আলীর ছেলে হাসিবুল ইসলাম জাহাবুল (২৩)। তাদের বিরুদ্ধে থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জানান, গোপন তথ্যের ভিত্তিতে রোববার ভোরে নন্দীগ্রাম পৌর সদরের ডাকনীতলাস্থ সেলিনা ফিলিং স্টেশন এলাকায় মহাসড়কে চেকপোস্ট বসিয়ে যানবাহনে তল্লাশি চালায় পুলিশ।

এ সময় ঢাকা মেট্রো ট-২৫-২৯১৯ পাথরভর্তি ট্রাকে তল্লাশিকালে ট্রাকের কেবিনের ছাদে গোপন একটি বক্সে পলিথিনে মোড়ানো ৫ কেজি ওজনের দশটি পটলায় রক্ষিত ৫০ কেজি গাঁজা পাওয়া যায়। এসময় ট্রাক জব্দ ও দুইজনকে গ্রেফতার করা হলেও এক মাদক কারবারি সুযোগ বুঝে পালিয়ে যায়। গ্রেফতারকৃতদের কাছ থেকে দুটি মোবাইল ফোন ও নগদ ৭২১টাকা উদ্ধারপূর্বক জব্দ করা হয়।