বগুড়া অফিস : সদ্য সমাপ্ত বগুড়ার নন্দীগ্রাম উপজেলার বুড়ইল ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতিকের চেয়ারম্যান প্রার্থী মোফাজ্জল হেসেন মন্ডল প্রয়োজনীয় সংখ্যক ভোট না পেয়ে জামানত হারিয়েছেন। তার সাথে ওই ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আরো ২ স্বতন্ত্র প্রার্থীও জামানত হারিয়েছেন।

তারা হলেন- আহসানুল হক (প্রতিক মোটর সাইকেল) ও রুহুল আমিন (প্রতিক আনারস)।

নির্বাচনে রিচার্নিং অফিসারের কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, গত ১৫জুন বুড়ইল ইউপি নির্বাচনে ইভিএম এ ভোট গ্রহন করা হয়। এখানে চেয়ারম্যান পদে মোট ৬জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দিতা করেন। সেখানে বিএনপির স্থানীয় নেতা স্বতন্ত্র প্রার্থী মোঃ জিয়াউর রহমান জিয়া (প্রতিক অটোরিকশা) ১১ হাজার ২৭০ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন।

তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দি স্বতন্ত্র প্রার্থী বিএনপি নেতা আব্দুল মালেক (প্রতিক চশমা) পেয়েছেন ৬ হাজার ৯শত ১৮ ভোট। তৃতীয় হয়েছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী ভবেশ চন্দ্র সরকার (প্রতিক ঘোড়া) প্রাপ্ত ভোট ৩রভঁভা ৯শ’ ২৯।

৪র্থ হয়েছেন নৌকার প্রার্থী মোফাজ্জল হোসেন মন্ডল। প্রাপ্ত ভোট এক হাজার ৮শত ৩৪, ৫ম স্থানে স্বতন্ত্র প্রার্থী আহসানুল হক (প্রতিক মোটর সাইকেল) প্রাপ্ত ভোট ৪৮৩ ও ৬ষ্ঠ স্থান অধিকারী স্বতন্ত্র প্রার্থী রুহুল আমিন (প্রতিক আনারস) প্রাপ্ত ভোট ২৬১।

নির্বাচন কমিশনের নিয়মানুযায়ী এই ইউপিতে চেয়ারম্যান পদে মোট প্রদত্ত ভোটের ৮ ভাগের ১ ভাগ কোন প্রার্থী না পেলে তার জামানত হিসেবে সরকারী কোষাগারে জমা দেয়া ৫ হাজার টাকা বাজেয়াপ্ত হবে। সে হিসেবে এই ইউনিয়নে মোট ৩০ হাজার ৩২৬ ভোটের মধ্যে প্রদত্ত ভোট ২৪ হাজার ৭৩৫ ভোট। নির্বাচনী আইন মোতাবেক ৩ হাজার ৯১ ভোট না পাওয়া আওয়ামী লীগ প্রার্থী মোফাজ্জল হোসেন, স্বতন্ত্র প্রার্থী আহসানুল হক ও রুহুল আমিনের জামানত বাজেয়াপ্ত হয়েছে।

নন্দীগ্রাম উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও বুড়ইল ইউপি নির্বাচনে রিটার্নিং কর্মকর্তা মোঃ আব্দুস সালাম এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।