আব্দুল মজিদ মল্লিক, নওগাঁ : নওগাঁ সদর হাসপাতালের নতুন ভবনের সিঁড়ি থেকে জীবিত এক মেয়ে নবজাতককে উদ্ধার করেছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। নবজাতককে রোববার দিবাগত রাত ১টার দিকে উদ্ধারের পর হাসপাতালের শিশু ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়। পরে এ ঘটনায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করে। নওগাঁ সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নজরুল ইসলাম জুয়েল এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, রাতে হাসপাতালের নতুন ভবনের তিন তলার সিঁড়িতে মানুষের চিল্লাপাল্লা শুনে এগিয়ে যান হাসপাতালের ওয়ার্ড বয় রাজু হোসেন। পরে রাজু দেখতে পান সিঁড়িতে এক নবজাতক কাঁন্না করছে। পরে অজ্ঞাত শিশুটিকে ওয়ার্ড বয়ের নামে শিশু ওয়ার্ডে ভর্তি করানো হয়। শিশু ওয়ার্ডের সিনিয়র স্টাফ নার্স মুনিরা জান্নাত বলেন, দায়িত্বরত ওয়ার্ড বয় রাজু শিশুটিকে উদ্ধার করে ভর্তি করান।

শিশুটি অক্সিজেন স্বল্পতায় ছিল। আমরা দ্রুত অক্সিজেনের ব্যবস্থা করি এবং ডাক্তার এসে তাৎক্ষণিক শিশুটির চিকিৎসা সেবা ও ওষুধ লিখে দিয়ে যান। হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ফজলুর হক বলেন, ‘শিশুটিকে উদ্ধার করে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। বর্তমানে সে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে এবং সুস্থ আছে। আমাদের ধারণা শিশুটি ৪ থেকে ৫দিন বয়সী হবে। শিশুটির দিকে বিশেষ নজর রাখা হচ্ছে।

তবে হাসপাতালের শিশু বা অন্য কোনো ওয়ার্ডে ভর্তি ছিল কি না শিশুটি তা এখনও জানা যায়নি। হাসপাতালে ভর্তি ছিল নাকি বাহিরে থেকে আসা সেটা তদন্তের পরই জানা যাবে। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষও বিষয়গুলো তদন্ত করবে।

ওসি নজরুল বলেন, নওগাঁ হাসপাতালে এক অজ্ঞাত জীবিত নবজাতককে উদ্ধার করা হয়েছে। ঘটনাটি জানার পর রাতেই পুলিশের একটি টিম পাঠানো হয়েছিল।

এ ঘটনায় প্রাথমিক অবস্থায় কাউকে এখনো শনাক্ত করা যায়নি। হাসপাতালের সিসিটিভি ফুটেজ দেখে অজ্ঞাত শিশুর পরিচয় শনাক্ত করার চেষ্টা চলছে। শিশুটির পরিচয় জানতে আমরা গুরুত্বের সঙ্গে তদন্ত করছি।