এম এম হারুন আল রশীদ হীরা, নওগাঁ : নওগাঁয় দু’ দিন ধরে ঘন কুয়াশা আর শীতের প্রকোপ হঠাৎ করে বেড়েছে। গত কয়েক দিন ধরেই সন্ধা রাত থেকে সকাল পর্যন্ত শীতের আমেজ লক্ষ্য করা যাচ্ছিল। বুধবার রাত থেকে পড়ছে চাদরে ঢাকা ঘন কুয়াশা। হিম হিম বাতাসের জন্য শৈত্য প্রবাহ অনেক বেড়েছে।

সকালে রাস্তাঘাটে জনসাধারণের চলাচল কমে গেছে। একান্ত কোন প্রয়োজন ছাড়া কেউ ঘর থেকে বের হচ্ছেন না। সড়ক দূর্ঘটনা এড়াতে মোটরসাইকেল, ট্রাক,গণপরিবহনসহ অন্যান্য যানবাহনে দিনের বেলাতেও হেড লাইট জ্বালিয়ে পথ চলাচল করতে দেখা যাচ্ছে। অনেকে কাজে বের হতে পারছেন না। ছিন্নমূল ও অসহায় মানুষের জীবনে নেমে এসেছে দুর্ভোগ। প্রয়োজন ছাড়া কেউ ঘর থেকে বের হচ্ছেন না। শীতের গরম কাপড় কিনতে গরীব অসহায় মানুষেরা বাজারের ফুটপাতের দোকান থেকে গরম কাপড় কিনতে ভীড় জমাচ্ছেন।এছাড়া চা দোকানে গরম গরম চা পানে লোকজনের আনাগেনা বাড়ছে। ডিমের দোকানের কদর বেড়ে গেছে। এছাড়াও রাস্তার পাশ্বে ভাপা পিঠা ও কালাইরুটি বিক্রির ধূম পড়েছে।

উত্তরাঞ্চলে শীত আস্তে আস্তে বাড়তে থাকলেও বদলগাছীতে রয়েছে র্সবনিম্ন তাপমাত্রা। যদিও বেলা বাড়ার সাথে সাথে রোদের তাপে কুয়াশা কেটে গিয়ে তাপমাত্রা একটু একটু করে বাড়তে থাকে। এছাড়া মান্দা, নিয়ামতপুর, পোরশাতে হঠাৎ করে ঘন কুয়াশা ও শীতের প্রকোপ বৃদ্ধি পেয়েছে। এতে করে ঠান্ডা জনিত সর্দি-কাশি, জ্বর, নিউমোনিয়া, শ্বাসকষ্ট, এলার্জি সহ বিভিন্ন রোগ বাড়ার সম্ভবনাও দেখা দিয়েছে।

জেলার মান্দা উপজেলার প্রসাদপুর গ্রামের মোহাম্মদ আলী সুটকা মন্ডল ইয়া বড় আলখেল্লা গায়ে জড়িয়ে দরগা তলা বিশ্ববাঁধ মোড়ে সকালে চা পানের জন্য এসেছেন। তিনিসহ গ্রামের অফের আলী মোল্যা,জানবক্স পাইক, আনিছুর রহমান ফকির জানালেন, গত দুই দিন ধরে হঠাৎ ঘন কুয়াশার সাথে হালকা হিমেল বাতাস প্রবাহিত হচ্ছে। এতে শীতের প্রকোপ বেড়েছে।

পোরশা উপজেলার পুরইল গ্রামের ঘোড়াকুড়ি এলাকার আলাউদ্দিন ও জবেশ চন্দ্র, ধুলাডাঙ্গা গ্রামের সাইদুর রহমন লালু সহ আরো অনেকে মুসাফিরখানায় কাজের সন্ধানে বসে ছিলেন। তারা সবাই দিনমজুরি কাজ করেন। তারা জানান, বেশ কিছু দিন আগে থেকেই হালকা শীত শীত ভাব ছিল। তবে হঠাৎ করেই দুইদিন ধরে বেশ শীত ও সন্ধ্যা সকালে ঘন কুয়াশা পড়ছে। তবে বুধবার সন্ধার পর থেকে ঘন কুয়াশা শুরু হয়েছে। আজ আরও বেশি পড়েছে। সে কারণে শীত যেন আরও জেঁকে বসেছে।তাদের কাজ করতে বেশ বেগ পেতে হচ্ছে। কাজ না করলেও কোন উপায় নেই। না খেয়ে থাকতে হবে।তাই বাঁধা হয়ে কাজে এসেছেন।

নওগাঁর বদলগাছী আবহাওয়া অফিসের টেলিপ্রিন্টার আরমান হোসেন এ প্রতিবেদককে জানান, বৃহস্পতিবার (আজ) বদলগাছীতে সকাল ৬ টায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রের্কড করা হয় ১৪ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস এবং বাতাসের আপেক্ষিক আর্দ্রতা ছিল সকাল ৯ টায় ১০০ শতাংশ।