ফাইল ছবি

এম এম হারুন আল রশীদ হীরা, নওগাঁ : নওগাঁর ধামইরহাটে পাওয়ার ট্রলি দিয়ে ধান ভাঙ্গতে যাওয়ার সময় নিয়ন্ত্রন হারিয়ে পরেশ হাসদা (২২) নামে এক কলেজ ছাত্র মর্মান্তিকভাবে নিহত হয়েছেন। রোববার বিকেলের দিকে এ দুর্ঘটনাটি ঘটে।

নিহত ওই চালক বেনীদুয়ার মিশনের আবাসিকে থাকা ধামইরহাট কলেজের স্নাতক পর্যায়ের শিক্ষার্থী ও উপজেলার আলতাদিঘী মোন্নাপাড়া গ্রামের বিমল হাসদারের ছেলে। ঘটনায় নিহতের পরিবার ও এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, ধামইরহাট ইউনিয়নের অন্তর্গত বেনীদুয়ার ক্যাথলিক ধর্মী পল্লী (মিশন) আবাসিকে থাকা মিশনের শিক্ষার্থীদের খাওয়ানোর জন্য পাওয়ার ট্রলি যোগে ৫/৭ বস্তা ধান মিশন হতে নিয়ে তা ভাঙ্গানোর জন্য হরিতকীডাঙ্গা মোড়ের দিকে রাইস মিলের উদ্দেশ্যে যাচ্ছিলেন।

আকস্মিকভাবে চালক পরেশ হাসদা গাড়ীর নিয়ন্ত্রন হারিয়ে রাস্তার নিচে পড়ে গেলে গাড়ির হ্যান্ডেলটি মাথায় চাপা লেগে মর্মান্তিক ভাবে জখম হন।

তাকে উদ্ধার করে ধামইরহাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন।

ধামইরহাট থানার পরিদর্শক (ওসি) কে এম রাকিবুল হুদা ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, পরিবারের পক্ষ থেকে কোন অভিযোগ না করায় ও কেউ বাদি না হওয়ায় লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।