বগুড়া অফিস : বগুড়ার ধুনট উপজেলায় যমুনা নদীর বন্যার পানিতে নিখোঁজের সাড়ে ২২ ঘন্টা পর আতিক হাসান (৭) নামে এক শিশুর লাশ উদ্ধার করেছে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল।

বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে উপজেলার শিমুলবাড়ি এলাকা থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। নিহত আতিক উপজেলার গোসাইবাড়ি পুর্বপাড়ার কমল হোসেনের ছেলে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, যমুনা নদীর পানি অব্যাহত বৃদ্ধির ফলে শিমুলবাড়ি গ্রামের সড়কটি পানিতে ডুবে গেছে। সেখান দিয়ে পানির স্রোত বইছে। বুধবার দুপুর ১২টার দিকে আতিক হাসান তার ভাইয়ের হাত ধরে পানি মাড়িয়ে ওই সড়ক দিয়ে যাচ্ছিল।

এ সময় কালভার্টটির কাছে পৌছলে পানির তীব্র স্রোতে আতিক তার ভাইয়ের হাত ফসকে ভেসে যায়।

বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে রাজশাহীর ডুবরি দলের সদস্যরা ১০ মিনিটের মাথায় ডুবে যাওয়া স্থান থেকে শিশুটির লাশ উদ্ধার করে। চার সদস্যের ডুবুরি দলের নেতৃত্ব দেন আরমান আলী।

ধুনট ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স স্টেশন লিডার হামিদুল ইসলামজানান,বৃহস্পতিবার সকালে ডুবুরিদের মাধ্যমে আতিকের লাশ উদ্ধার করে তার স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।