খোলাবার্তা২৪ ডেস্ক : জোর কদমে বা জোরে হাঁটলে দীর্ঘ হবে আয়ু। শুনতে অবাক লাগলেও এমনটাই দাবি ব্রিটেনের লেস্টার বিশ্ববিদ্যালয়ের এক দল গবেষকের। ৬৫ থেকে ১০৫ বছর বয়সি মানুষদের মৃত্যুর কারণ সংক্রান্ত গবেষণা চলাকালীন তাঁরা এই কথা জানতে পেরেছেন বলে দাবি গবেষকদের।

যদিও বয়স বৃদ্ধি পাওয়ার কারণ নিয়ে নির্দিষ্ট কোনো তথ্য নেই বিজ্ঞানের কাছে, তবে বার্ধক্যের সঙ্গে কোষে অবস্থিত ক্রোমোজোমের যে কোনো না কোনো সম্পর্ক রয়েছে তা নিয়ে নিশ্চিত গবেষকরা।

ক্রোমোজোমের বাহুগুলির শেষ প্রান্তকে বিজ্ঞানের ভাষায় ‘টেলোমেয়ার’ বলে। দেখা গেছে এই টেলোমেয়ার যত দিন লম্বা থাকে তত দিন বার্ধক্য দূরে থাকে। কিন্তু এই টেলোমেয়ার যত ক্ষয় হতে থাকে ততই কমতে থাকে কোষ বিভাজন। ফলে দুর্বল হয় পেশির গঠন, দেখা দিতে থাকে বার্ধক্য।

৪,০৫,০০০ জনের উপর করা এই গবেষণায় দেখা গেছে মোট চল্লিশ শতাংশ মানুষ নিয়মিত দ্রুত গতিতে হাঁটেন। আর এই চল্লিশ শতাংশ মানুষের টেলোমেয়ারের দৈর্ঘ্য বাকি মানুষদের তুলনায় বেশি। এর মধ্যে ৮৬ মানুষের সঙ্গে গতি মাপার বিশেষ যন্ত্র লাগিয়েছিলেন গবেষকরা। বাকিদের সঙ্গে কথা বলা হয় মুখে। গবেষকদের দাবি, দ্রুত গতিতে হাঁটলে সর্বোচ্চ ১৬ বছর পর্যন্ত বাড়তে পারে আয়ু। তবে এই বিষয়ে আরো গবেষণার প্রয়োজন রয়েছে বলেই মত গবেষকদের একাংশের।