আকরাম হোসাইন, বগুড়া প্রতিনিধি : বগুড়ায় কাহালুর চাঞ্চল্যকর ইব্রাহিম আলি (৭৫) হত্যাকাণ্ডে জড়িত প্রধান দুই আসামিকে শওকত আলী (৩০) এবং মোর্শেদা খাতুন (৪৯) গ্রেপ্তার করেছে সিআইডি।

গ্রেপ্তারকৃত শওকত আলী কাহালু থানার বাখরা গ্রামের নিহত ইব্রাহিম আলীর ছেলে এবং মোর্শেদা খাতুন একই গ্রামের নিহত ইব্রাহিম আলীর দ্বিতীয় স্ত্রী।

বুধবার (২৯ সেপ্টেম্বর) সকালে সিআইডি বগুড়ার সহকারী পুলিশ সুপার হাসান শামীম ইকবাল বিষয়টি নিশ্চিত করেন। এর আগে গতকাল মঙ্গলবার দুপুরের দিকে নিজ নিজ বাড়ি থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

সিআইডি বগুড়ার সহকারী পুলিশ সুপার হাসান শামীম ইকবাল জানান, জমিজমার ভোগদখল সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে ২০১৯ সালের ১৫ আগস্ট ভোররাতে খুন হন বগুড়ার কাহালুর বাঁখড়া গ্রামের মৃত আলিম উদ্দিন আকন্দের ছেলে ইব্রাহিম আলী।

নিহত ইব্রাহিমের দ্বিতীয় স্ত্রী মোর্শেদা এবং দ্বিতীয় স্ত্রীর ছেলে শওকত আলীসহ অন্য আসামিরা পরস্পর যোগসাজশে তাকে চেতনানাশক ওষুধ প্রয়োগের পর লাঠি ও লোহার রড দিয়ে মারধর করেন।

এ ঘটনায় নিহত ইব্রাহিমের ছেলে প্রথম স্ত্রীর ছেলে সারোয়ার হোসেন বাদী হয়ে আদালতে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। পরে আদালতের নির্দেশে কাহালু থানার ওসি ঘটনায় ২০১৯ সালের ২৬ নভেম্বর কাহালু থানার মামলা নম্বর ১১ ধারা ৩০২/৩৪ রুজু করে তদন্তভার সিআইডি বগুড়া জেলাকে হস্তান্তর করেন।

২০১৯ সালের ৩০ ডিসেম্বর সিআইডি বগুড়া জেলার ভূতপূর্ব পুলিশ পরিদর্শক মো. খায়রুল বাসার মামলাটির তদন্তভার গ্রহণ করেন। তবে মামলার ঘটনা তদন্তকালীন তিনি অন্যত্র বদলি হয়ে গেলে পরবর্তীতে সিআইডি বগুড়া জেলার পুলিশ পরিদর্শক মো. আমিনুল হক ২০২০ সালের ২৬ নভেম্বর মামলাটির পরবর্তী তদন্তভার গ্রহণ করেন।

তিনি আরো জানান, আমিনুল ইসলাম তথ্য-প্রযুক্তি ও বিজ্ঞানভিত্তিক তদন্তের মাধ্যমে বিশেষ পুলিশ সুপার মোহাম্মদ কাউছার সিকদারের প্রত্যক্ষ দিক-নির্দেশনায় মঙ্গলবার দুপুরের দিকে প্রধান দুই আসামিকে গ্রেপ্তার করেন।

হাসান শামীম ইকবাল জানান, আসামিদের জিজ্ঞাসাবাদ শেষে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।