জামালপুর প্রতিনিধি : জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জে পুর্ব শত্রুতার জের ধরে দু’পক্ষের রক্তক্ষয়ি সংঘর্ষে প্রতিপক্ষের হামলায় হাবিবুর রহমান (৪০) ও সোলায়মান হোসেন (৩৭) নামের দুই সহোদরের মৃত্যু হয়েছে।

উপজেলার সদর ইউনিয়নের তিলকপুর পূর্ব পাড়া গ্রামে রোববার সকাল ১১টায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত হাবিবুর রহমান ও সোলায়মান হোসেন ওই গ্রামের সওদাগর শেখের ছেলে।

দেওয়ানগঞ্জ মডেল থানার ওসি শ্যমল চন্দ্র ধর জানায়, নিহত হাবিবুরের ভাতিজা ফকরুল একই গ্রামের ইউনুসের ছেলে ইমরানের বন্ধু ছিল। বেশকয়েকদিন আগে ফকরুলের এক আত্বীয়কে ইমরান মারধর করলে তাদের মধ্যে বন্ধুত্বপুর্ণ সম্পর্ক ভেঙ্গে যায়। ফকরুল ইমরানের কাছে দুই হাজার টাকা পায়। আজ সকালে ফকরুল কয়েকজন সঙ্গে নিয়ে ইমরানের কাছে পাওনা টাকা চাইতে যায়। পাওনা টাকা নিয়ে দুই বন্ধুর মধ্যে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে হাতাহাতি শুরু হলে খবর পেয়ে ফকরুলের চাচা হাবিবুর ও সোলায়মান সেখানে যান।

এদিকে ইমরানের লোকজনও ঘটনাস্থলে উপস্থিত হলে দু’পক্ষের মধ্যে রক্তক্ষয়ি সংঘর্ষ শুরু হয়। সংঘর্ষ চলাকালে ইমরানের পক্ষের লোকজনের ফালার আঘাতে ঘটনাস্থলেই মারা যান হাবিবুর ও সোলায়মান। এ ঘটনায় আরো এক জন গুরুতর আহত হয়েছেন । তাকে ইসলামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

খবর পেয়ে দেওয়ানগঞ্জ মডেল থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। এ ঘটনায় সন্দেহভাজন ১০ জনকে আটক করেছে পুলিশ।

ওসি শ্যামল চন্দ্র ধর আরো জানায়, নিহত দুই সহোদরের লাশ ময়না তদন্তের জন্য জামালপুর জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে ১০ জনকে আটক করা হয়েছে। এ ব্যপারে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।