ময়মনসিংহ অফিস : দুর্নীতির অভিযোগে নেত্রকোনা জেলার পূর্বধলা উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) কার্যালয়ের সহকারী কাম কম্পিউটার মুদ্রাক্ষরিক আতিকুল ইসলাম খানকে সাত বছরের সশ্রম কারাদ- এবং পঞ্চাশ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো ছয় মাসের কারাদন্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। অবশ্য রায় ঘোষণার সময় মামলার একমাত্র আসামি আতিকুল ইসলাম খান পলাতক থাকায় আদালতে অনুপস্থিত ছিলেন।

মামলার দীর্ঘ শুনানি শেষে রোববার এ রায় ঘোষণা করেন ময়মনসিংহের বিশেষ জজ আদালতের বিচারক সাবেরা সুলতানা খানম।

রাস্ট্রপক্ষের আইনজীবী কাজী শফিকুল হাসান খবরের সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, আসামি মো. আতিকুল ইসলাম খান ২০১৬ সালে পূর্বধলা উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নামে সোনালী ব্যাংক থেকে সাতটি চেকের মাধ্যমে জালিয়াতি করে পঁচিশ লাখ ছাপ্পান্ন হাজার টাকা হাতিয়ে নেন। পরবর্তীতে ২০১৭ সালে দুদক বাদী হয়ে পূর্বধলা থানায় একজনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন।

পুলিশ গত ২০১৯ সালের ২৪ মার্চ আদালতে অভিযোগ পত্র দায়ের করেন। দীর্ঘ শুনানি ও স্বাক্ষীদের স্বাক্ষ্য গ্রহণ শেষে দুর্নীতি প্রতিরোধ আইনের ৪০৯ ধারার অপরাধ সন্দেহাতীত ভাবে প্রমাণিত হওয়ায় আসামির বিরুদ্ধে আদালত ওই রায় ঘোষণা করেন।