সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি : গতবছর সড়ক র্দূঘটনায় সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলার চরনারচর ইউনিয়নের পূর্ব শ্যামারচরের বাসিন্দা শ্রীমঙ্গলে কর্মরত ব্র্যাক কর্মকর্তা স্বপন কুমার দাস, তার সহধর্মিনী লাভলী রানী সরকার ও তিন পূত্র সন্তানসহ একই পরিবারের ৫জন নিহতের স্মরণে আনন্দ বাজার স্মরণসভা ও শতাধিক মানুষের মাঝে বস্ত্র বিতরণ করা হয়েছে।

বুধবার রাত ৮টায় নিহতের বড়ভাই সমর চন্দ্র দাসের নিজস্ব অর্থায়নে পূর্ব শ্যামারচর বাজার পূজামন্ডপ প্রাঙ্গণে আনন্দ বাজার ও স্মরণ সভা, অনুষ্ঠিত হয়।

বীর মুক্তিযোদ্ধা নলিনি দাসের সভাপতিত্বে ও পূর্ব শ্যামারচর পূজা কমিটির সভাপতি প্রভাত চন্দ্র দাসের সঞ্চালনায় এ সময় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন চরনারচর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রতন কুমার তালুকদার। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রবীন আওয়ামীলীগ নেতা ও চরনারচর ইউপি সাবেক চেয়ারম্যান জয়কুমার বৈষ্ণব,কমিটির সাধারন সম্পাদক সমর চন্দ্র দাস, শ্যামারচর বাজারের বিশিষ্ঠ ব্যবসায়ী মো. আজিজুল হক,সুবল চন্দ্র দে ও ডা. পীয়ুষ চৌধুরী প্রমুখ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে চরনারচর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রতন কুমার তালুকদার বলেন, এই স্বপন কুমার দাস ছিলেন আমাদের ভাটির জনপদ শ্যামারচরের আলোকিত একজন মানুষ। তিনি এভাবে অকালে সড়ক র্দূঘটনায় তার পরিবারের পাচটি তাজা প্রাণ ঝড়ে যাবে তা ছিল কল্পনার বাহিরে। কিন্তু নিয়তি বড়ই কঠিন তাই বাস্তবতাকে সবাই মেনে নিতে হবে। তিনি নিহত সকলের আত্মার শান্তি কামনা করে। পরে এলাকার অসহায়,হতদরিদ্র ও ছিন্নমূল শতাধিক মানুষের মাঝে লুঙ্গী,সার্ট ও পাজ্ঞাবী বিতরণ করা হয়।

উল্লেখ্য স্বপন কুমার দাস গত বছর ২০২০ সালের ৩১ জুলাই তার কর্মস্থল শ্রীমঙ্গল হতে প্রাইভেট কারযোগে নিজ বাড়ি সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলার শ্যামারচরে ফেরার পথে সিলেটের ওসমানী নগরে সড়ক র্দূঘটনায় তিনি ন্ত্রী ও তিন সন্তান নিহত হন।