দিনাজপুর সংবাদদাতা : দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ডের স্থগিত হওয়া চার বিষয়ের পরীক্ষা অক্টোবরের ১০ থেকে ১৩ তারিখের মধ্যে অনুুষ্ঠিত হবে। দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক কামরুল ইসলাম বৃহস্পতিবার গণমাধ্যমকে এ কথা জানিয়েছেন।

শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক কামরুল ইসলাম জানান, প্রশ্নপত্র ফাঁসের ঘটনা খতিয়ে দেখতে বোর্ডের কলেজ পরিদর্শক অধ্যাপক ফরাজউদ্দিনকে প্রধান করে বুধবার রাতে তিন সদস্যের এই কমিটি করা হয়েছে৷ কমিটির সদস্যরা বৃহস্পতিবার কাজ শুরু করেছেন৷

তদন্ত কমিটির অপর দুই সদস্য হলেন দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ডের উপ-পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক হারুনুর রশিদ এবং রংপুর বিভাগের মাধ্যমিক শিক্ষার উপ-পরিচালক মো. আখতারুজ্জামান৷

তদন্ত কমিটি আগামী পাঁচ কার্যদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দেবে বলে জানান শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান৷

এর আগে মঙ্গলবার দুপুরে ভুরুঙ্গামারী নেহাল উদ্দিন পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের কক্ষ থেকে প্রশাসনের কর্মকর্তারা এসএসসির চারটি বিষয়ের প্রশ্নপত্র উদ্ধার করেন৷ এরপর রাতে গ্রেপ্তার করা হয় প্রধান শিক্ষক ও কেন্দ্র সচিব লুৎফর রহমান, ইংরেজির শিক্ষক আমিনুর রহমান রাসেল এবং চুক্তিভিত্তিক নিয়োগপ্রাপ্ত শিক্ষক জুবায়ের হোসাইনকে৷

চারজন শিক্ষকের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাতপরিচয় আরো ১০-১২ জনকে আসামি করে একটি মামলাও হয় ভুরঙ্গমারী থানায়৷

প্রশ্নপত্র ফাঁসের ঘটনার পর বুধবার দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ডর গণিত, কৃষিশিক্ষা, পদার্থবিজ্ঞান ও রয়ায়ন পরীক্ষা স্থগিত করার ঘোষণা করা হয়৷

শিক্ষা সচিব আবু বকর বুধবার সাংবাদিকদের বলেছেন, ভুরুঙ্গামারীর ঘটনায় যারাই জড়িত থাক, কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না৷