ময়মনসিংহ অফিসত্রিশাল প্রতিনিধি : ময়মনসিংহ জেলা পুলিশের সেবা মূলক নারী কল্যাণ সংগঠন পুনাকের সভাপতি ও মানবতার ফেরিওয়ালা মিসেস কাণিজ আহমারের পক্ষ থেকে ত্রিশালের স্বজন হারানো শিশু ফাতেমাকে গিফট ও আর্থিক সহায়তা প্রদান করা হয়।

আজ মঙ্গলবার দুপুরে মমেক হাসপাতালে ২৫ নং শিশু ওয়ার্ডে পুণাক সভাপতি পক্ষ থেকে গিফট তুলে দেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ফাল্গুনী নন্দী। দুর্ঘটনার পর থেকে শিশু ফাতেমার সার্বিক খোজ খবর রাখছেন কাণিজ আহমার বলে জানাযায়।

জানা যায়, ১৬ জুলাই দুপুরে উপজেলার রাইমনি গ্রামের জাহাঙ্গীর আলম মেয়ে সানজিদাকে (৬) সঙ্গে নিয়ে অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী রত্না বেগমকে আল্ট্রাসনোগ্রাফি করাতে ত্রিশালে যান।

পৌর শহরের খান ডায়াগনোস্টিক সেন্টারের সামনে রাস্তা পারাপারের সময় একটি ট্রাক তাদের চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই জাহাঙ্গীর আলম, রত্না বেগম নিহত হন ও ঘটনাস্থলেই রত্না বেগমের পেট ফেটে শিশুটির জন্ম হয়।

পরে আহত শিশু সানজিদা ও নবজাতককে উদ্ধার করে ত্রিশাল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক সানজিদাকে মৃত ঘোষণা করেন।

নবজাতককে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ (মমেক) হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।