নীলফামারী প্রতিনিধি : তিস্তা মহাপরিকল্পনা বাস্তবায়নের সিদ্ধান্ত খুব শিগগিরই হবে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশে নিযুক্ত চীনা রাষ্ট্রদূত এইচই মি. লি জিমিং।

চীনা রাষ্ট্রদূত জানান তিস্তা মহাপরিকল্পনা বাস্তবায়ন হলে তিস্তার দু’পারের মানুষজনের জীবনযাত্রার মান পাল্টে যাবে।

আজ রোববার দুপুরে নীলফামারীর ডালিয়া তিস্তা ব্যারেজ এলাকা পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা জানান তিনি।

চীনা রাষ্ট্রদূত বলেন, আমরা সবার আগে ভাববো তিস্তা পারের মানুষের কথা। তারা কি চায়। তাদের মনোভাব কি। তিস্তা মহাপরিকল্পনা বাস্তবায়নের জন্য সবচেয়ে আগে দরকার হবে তিস্তাপারের মানুষজনের সহযোগিতা।

তিনি বলেন, বর্তমানে প্রকল্পটির যাবতীয় তথ্যাদি চীন সরকারের সংশ্লিষ্ট দপ্তরে নিরীক্ষার কাজ চলছে। আমরা প্রকল্পটিকে গুরুত্বের সাথে দেখছি।

তিনি আরো বলেন, প্রকল্পটি বাস্তবায়ন হলে এই অঞ্চলের মানুষজেনর জীবনমান উন্নয়ন, অর্থনীতি, প্রকৃতি ও পরিবেশ, যোগাযোগ ব্যবস্থাসহ সর্বপরি মানুষের প্রতিটি ক্ষেত্রের পরিবর্তন ঘটবে। প্রকল্প বাস্তবায়নে ব্যারেজ এলাকার সম্ভাব্যতা যাচাই চলছে এবং দুই দেশের সরকারের প্রচেষ্টায় দ্রুত কাজ শুর হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

চীনা রাষ্ট্রদূত পরিদর্শনের সময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন লালমনিরহাট-১ আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা মোতাহার হোসেন, পানি উন্নয়ন বোর্ড রংপুর অঞ্চলের প্রধান প্রকৌশলী আনোয়ারুল হক ভুইয়া, নীলফামারীর ডিমলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বেলায়েত হোসেন, পানি উন্নয়ন বোর্ড নীলফামারী ডালিয়া বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী আশফাউদৌলা প্রমূখ।