ছবি: সংগৃহীত

খোলাবার্তা২৪ ডেস্ক : তাজমহলের ‘আসল ইতিহাস’ জানতে চেয়ে ভারতের উত্তরপ্রদেশের বিজেপি নেতার জনস্বার্থে দায়ের করা মামলায় কড়া প্রতিক্রিয়া জানাল এলাহাবাদ হাই কোর্ট।

বৃহস্পতিবার শুনানিপর্বে আবেদনকারী পক্ষের আইনজীবীকে দুই বিচারপতির বেঞ্চ ভর্ৎসনা করে বলেছে, ‘এ ভাবে জনস্বার্থ মামলাকে উপহাসের বিষয়ে পরিণত করা চেষ্টা করবেন না।’’

তাজমহলের বন্ধ থাকা ২২টি ঘর খুলে দেখার আবেদন খারিজ করে দিয়েছে এলাহাবাদ হাই কোর্ট।

উত্তরপ্রদেশের অযোধ্যা জেলার ‘মিডিয়া ইনচার্জ’ রজনীশ সিংহ ভারতীয় পুরাতত্ত্ব সর্বেক্ষণ (আর্কিয়োলজিকাল সার্ভে অব ইন্ডিয়া বা এএসআই)-এর তত্ত্বাবধানে তাজমহলের ‘আসল ইতিহাস’ অনুসন্ধানের দাবিতে ইলাহাবাদ হাই কোর্টের লখনউ বেঞ্চে জনস্বার্থ মামলা দায়ের করেছিলেন।

পাশাপাশি, তাজমহলের অন্দরে দীর্ঘ দিন ধরে ২২টি ঘর বন্ধ রয়েছে দাবি করে, এএসআই-এর প্রতিনিধিদের উপস্থিতিতে সেগুলি খোলারও দাবি জানান তিনি। এমন দাবি প্রসঙ্গে দুই বিচারপতির বেঞ্চের প্রতিক্রিয়া- ‘এর পর তো আগামিকাল আপনারা আমাদের চেম্বার খুলে কী আছে দেখার অনুমতি চাইবেন!’

হিন্দুত্ববাদী সংগঠনগুলির দাবি, ‘তেজো মহালয়’ নামে একটি শিব মন্দিরের উপরে তাজমহল গড়া হয়েছে। যদিও বৃহস্পতিবার আদালতে রজনীশের আইনজীবী জানান, তাজমহলের জমিতে মন্দির নির্মাণ করা তাঁদের উদ্দেশ্য নয়। প্রকৃত ইতিহাস জনসাধারণের সামনে তুলে ধরতেই ওই জনস্বার্থ মামলা। যদিও সেই যুক্তি মানতে চায়নি এলাহাবাদ হাই কোর্ট।