তৌহিদ চৌধুরী প্রদীপ, সুনামগঞ্জ : সুনামগঞ্জ-সিলেট আঞ্চলিক মহাসড়কে থেমে নেই সড়ক দুর্ঘটনা। জেলার শান্তিগঞ্জ উপজেলায় ডাবর-জগন্নাথপুর সড়কে সড়কে পার্কিংয়ে থাকা বিকল ট্রাকের সাথে বরযাত্রীর নোহা গাড়ির ধাক্কায় ৩ শিশুর মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। গাড়তে থাকা আরো ৮ জন গুরুতর আহত হয়েছেন।

রোববার (২১ নভেম্বর) রাত সাড়ে ৯টায় সুনামগঞ্জ-সিলেট সড়কের শান্তিগঞ্জ উপজেলার ডাবর পয়েন্টে এই দুর্ঘটনাটি ঘটে। নিহতরা হলেন- জগন্নাথপুর উপজেলার কলকলিয়া ইউনিয়নের পুতুল দাসের পুত্র খোকন দাস (২), সমীরণ দাসের পুত্র নিলয় দাস (৯) এবং লিপু চন্দের পুত্র প্রণব চন্দ (৮)।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, জগন্নাথপুর উপজেলার কলকলিয়া ইউনিয়নের মোল্লারগাঁও গ্রাম থেকে বরযাত্রীর দল শান্তিগঞ্জের পাগলা ইউনিয়নের শত্রুমর্দন গ্রামে একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে এসেছিলেন।

বিয়ের অনুষ্ঠান শেষে তারা নোহা মাইক্রোবাসযোগে বাড়ি ফেরার পথে রওয়ানা হন। রাত সাড়ে ৯টার দিকে সুনামগঞ্জ-জগন্নাথপুর সড়কের ডাবর পয়েন্টে দ্রুতগতির নোহা মাইক্রোবাসটি রাস্তার উপর পার্কিংয়ে থাকা মালবাহী বিকল ট্রাকের পেছন ধাক্কা দেয়।

এতে নোহা মাইক্রোবাসটি দুমড়ে-মুচড়ে গাড়ীর ছাদ উড়ে রাস্তার পাশে পড়ে যায়।

এ সময় মাইক্রো বাসে থাকা ১১জন যাত্রী গুরুতর আহত হন। এর মধ্যে আশঙ্কাজনক অবস্থায় শিশু খোকন, নিলয় এবং প্রণবকে উদ্ধার করে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন।

দুর্ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন শান্তিগঞ্জ থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি কাজী মুক্তাদির হোসেন।

এদিকে দুর্ঘটনার খবর পাওয়ার সাথে সাথেই সহকারী পুলিশ সুপার শুভাশীষ ধর ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন বলে জানা গেছে।