মির্জাপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি : খান আহম্মেদ শুভর হাতেই নৌকা তুলে দিয়েছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। টাঙ্গাইল-৭ (মির্জাপুর) আসনের জাতীয় সংসদেরর উপ-নির্বাচনে তরুণ নেতৃত্ব হাস্যোজ্জ্বল জনপ্রিয় মুখ খান আহম্মেদ শুভর উপরেই ভরসা রেখেছে আওয়ামী লীগ।

শুক্রবার বিকালে প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে আওয়ামী লীগের স্থানীয় সরকার মনোনয়ন বোর্ড ও দলের সংসদীয় বোর্ডের যৌথ সভায় তার মনোনয়ন চূড়ান্ত করা হয়।

সভায় সভাপতিত্ব করেন আওয়ামী লীগের সংসদীয় ও স্থানীয় সরকার জনপ্রতিনিধি মনোনয়ন বোর্ডের সভাপতি এবং আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বৈঠক শেষে গণমাধ্যমকে জানানো হয়, জাতীয় সংসদ আসন-১৩৬ টাঙ্গাইল-৭ (মির্জাপুর) আসন উপ-নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়েছেন খান আহম্মেদ শুভ। আজকের (শুক্রবার) মনোনয়ন বোর্ডে এই সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হয়েছে।

প্রসঙ্গত টাঙ্গাইল-৭ (মির্জাপুর) আসনে টানা চারবারের জাতীয় সংসদ সদস্য, সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. একাব্বর হোসেন গত ১৬ নভেম্বর ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতাল (সিএমএইচ)চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। তার মৃত্যুতে এরপর ৩০ নভেম্বর নির্বাচন কমিশনের সচিব মো. হুমায়ুন কবীর খোন্দকার আসনটি শূন্য হওয়া টাঙ্গাইল-৭ আসনের উপ-নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেন। তফসিল অনুযায়ী আগামী ১৫ ডিসেম্বর মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ তারিখ, ২০ ডিসেম্বর বাছাই, ২৭ ডিসেম্বর প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ দিন এবং আগামী ২০২২ সালের ১৬ জানুয়ারী আসনটিতে ভোটগ্রহণ । ভোট হবে ইভিএম পদ্ধতিতে।

তিনি টাঙ্গাইল জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও টাঙ্গাইল-৭ মির্জাপুর আসনের সাবেক সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা ফজলুর রহমান খান ফারুকের একমাত্র পুত্র। তরুণ প্রজন্মের কাছে বেশ জনপ্রিয় তিনি শুভ ভাই নামেই

খান আহম্মেদ শুভ টাঙ্গাইল চেম্বার্স এন্ড কর্মাস এ্যাসোসিয়েশন ইন্ড্রাস্টির সভাপতি, এফবিসিসিআই এর পরিচালক ও জেলা আওয়ামী লীগের কার্য্যকারী সদস্য। তার পরিছন্ন রাজনীতি মির্জাপুরের মানুষ ভালোবাসেন। দলীয় মনোনয়ন চূড়ান্ত হওয়ার খবর পৌছালে রাতে টাঙ্গাইল ও মির্জাপুর সদরসহ বিভিন্ন এলাকায় শুভ ভাইয়ের পক্ষে নৌকা প্রতিকের মিছিল বের করেছেন নেতাকর্মিরা জানিয়েছেন মির্জাপুর উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও শুভ সংঘের সভাপতি মো.শরীফুল ইসলাম।