মেয়াদ শেষে দোকানঘর দখল

গাজীপুর মহানগর প্রতিনিধি : ভাড়া চুক্তিনামার মেয়াদ শেষ হওয়ার পরও আড়াই বছর যাবত দোকানঘর অবৈধভাবে দখলে রেখে ব্যবসা পরিচালনা করছিলেন একজন ব্যবসায়ী। একাধিকবার দেন-দরবার করেও ভাড়াটিয়াকে দোকান থেকে উচ্ছেদ করতে না পেরে অবশেষে দোকানে তালা দিলেন মার্কেট মালিক। গতকাল শনিবার টঙ্গী পশ্চিম থানার আউচপাড়া কলেজ রোডের মুল্লুক মার্কেটে এ ঘটনা ঘটে।

মার্কেট মালিক মুল্লুক হোসেন জানান, তার মার্কেটের অরেঞ্জ নামীয় কাপড়ের দোকানের ভাড়াটিয়া সাইফুল ইসলাম মোল্লা ওরফে বিপুলের ভাড়ার মেয়াদ শেষ হয় গত ২০২০ সালের ৩১ জুন। উক্ত মেয়াদ শেষে দোকানঘরের ডেকোরেশন ও বৈদ্যুতিক লাইন বাবদ খরচ অ্যাডভান্স ও বকেয়া ভাড়ার সাথে সমন্বয় করে দোকান ছাড়ার জন্য তাকে বলা হয়।

কিন্তু তিনি নানা তালবাহানার আশ্রয় নিয়ে প্রায় আড়াই বছর যাবত বহাল তবিয়তেই আছেন। একাধিবার স্থানীয়ভাবে দেনদরবার ও নোটিশ করার পরও অদ্যাবধি অবৈধভাবে দোকানঘর দখলে রেখে ব্যবসা পরিচালনা করছেন।

অপরদিকে ভাড়াটিয়া সাইফুল ইসলাম বিপুল মার্কেট মালিক মুল্লুক হোসেনকে গ্যারান্টার দেখিয়ে একটি ব্যাংক থেকে লোন উত্তোলন করেছিলেন। উক্ত লোন পরিশোধ না করে তিনি ব্যাংকের সাথে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেন। ফলে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ লোনের দায় এখন মার্কেট মালিক মুল্লুক হোসেনের ওপর চাপাচ্ছেন। উক্ত লোন পরিশোধের দায় থেকে অব্যাহতি দেওয়ার জন্য বার বার ভাড়াটিয়া বিপুলকে অনুরোধ করার পরও তিনি কোনো কর্নপাত করছেন না বলে মার্কেট মালিক মুল্লুকের অভিযোগ।

এ ব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে সাইফুল ইসলাম বিপুল বলেন, মার্কেট মালিক মৌখিকভাবে ভাড়ার মেয়াদ বাড়িয়েছিলেন। তিনি এখন অস্বীকার করছেন।