ঝালকাঠির আইন শৃঙ্খলা বিষয়ক সভায় বক্তব্য রাখছেন জেলা প্রশাসক মোঃ জোহর আলী 

কাজী খলিলুর রহমান, ঝালকাঠি প্রতিনিধি : ঝালকাঠিতে বাসন্ডা নদী অবৈধ দখল অব্যহত রয়েছে এবং দখলকারিদের স্থাপনা উচ্ছেদের সোচ্চার দাবী উঠেছে আইন শৃঙ্খলা বিষয়ক কমিটির সভায়।

রোববার সকাল সাড়ে দশটায় ঝালকাঠি জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত এই সভায় ঝালকাঠির জেলা প্রশাসক মোঃ জোহর আলী সভাপতিত্ব করেন। সভায় পুলিশ সুপার ফতিহা ইয়াসমিন, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট লতিফা জান্নাতি, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক এ্যাডভোকেট খাঁন সাইফুল্লাহ পনির, উপজেলা চেয়ারম্যান সিদ্দিকুর রহমান ও মোঃ মুনিরুজ্জামান মনির এবং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাগণসহ কমিটিভুক্ত সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

অন্যদের মধ্যে জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক হাবিবুর রহমান হাবিল ও জেলা কাজী সমিতির সভাপতি মাওঃ এস এম বসির প্রমূখ বক্তব্য রাখেন। সভা জুড়েই সাম্প্রতিক নেছারাবাদ এন এস কামিল মাদ্রাসা কতৃপক্ষ ঐতিহ্যবাহী বাসন্ডা নদীর গতিপথ রোধ করে নদী ভরাট প্রক্রিয়ায় তীব্র অসন্তোষ এবং ক্ষোভ প্রকাশ করা হয় এবং শুধু এই প্রতিষ্ঠানটি নয় বাসন্ডা নদী ইতি পূর্বে যারা ভরাট করে স্থাপনা নির্মান করেছে সেই সকল অবৈধ দখলকারিদের অনতিবিলম্বে উচ্ছেদ করে বাসন্ডা নদীর স্বভাবিক গতিপথ সচল রাখার দাবী করা হয়েছে। জেলা প্রশাসক সভায় জানান, এন এস কামিল মাদ্রাসার বাসন্ডা নদী ভরাট প্রক্রিয়া বন্ধ করে দেয়া হয়েছে এবং নদী রক্ষা কমিটির জরুরী সভা করার জন্য পানি উন্নয়ন বোর্ডকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

সভায় পুলিশ সুপার ফতিহা ইয়াসমিন অপরাধ পরিসংখ্যান তুলে ধরেন।ঝালকাঠি জেলায় আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি অন্যান্য জেলার চেয়ে তুলনামূলক ভাবে ভালো রয়েছে এবং বিগত মাসের তুলনায় মামলার সংখ্যা কমে আসছে। এপ্রিল মাসের জেলার চারটি থানায় ৪৬টি মামলা দায়ের হয়েছে এবং ২৮ জন আসামী গ্রেফতার হয়েছে। এর মধ্যে ১৭টি মাদক আইনের মামলা রয়েছে। বড় ধরনের কোনো অপরাধ ঘটেনি। এর পূর্বে মার্চ মাসে এই জেলায় মামলার সংখ্যা ছিল ৫৫টি। সভায় বক্তারা ঈদ পরবর্তী জেলার বিদ্যমান আইন শৃংখলা পরিস্থিতিতে সন্তোষ প্রকাশ করেন। আইর শৃঙ্খলা পরিস্থিতি ভালো থাকায় সন্তোষ প্রকাশের মধ্য দিয়ে সভা শেষ হয়।