কাজী খলিলুর রহমান, ঝালকাঠি প্রতনিধি : ঝালকাঠির রাজাপুরে স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে স্বামীর বিরুদ্ধে। সোমবার রাতে উপজেলার জীবনদাশকাঠি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। অভিযুক্ত স্বামী আব্দুল আজিজকে (৫৫) মঙ্গলবার সকালে আটক করেছে পুলিশ।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, আব্দুল আজিজ ঢাকায় একটি কোম্পানীতে প্রহরী পদে চাকরি করেন। তাঁর তিন সন্তান রয়েছে। গতকাল সোমবার আব্দুল আজিজ বাড়িতে আসলে স্ত্রী নারগিস বেগমের (৪৫) সাথে পারিবারিক কলহ নিয়ে ঝগড়া হয়। এরই জেরে রাতে আব্দুল আজিজ লোহার সাবল দিয়ে স্ত্রী নারগিসকে আঘাত করলে গুরুতর আহত হয়। তাকে রাজাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

এ ঘটনায় মঙ্গলবার সকালে নিহতের স্বামী আব্দুল আজিজকে আজক করে পুলিশ। পুলিশের কাছে তিনি স্ত্রীকে হত্যার কথা স্বীকার করেছেন।

রাজাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গোলাম মোস্তফা জানান, নিহতের লাশ উদ্ধার করে ঝালকাঠি সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় নিহত নারগিসের বড় ভাই রফিকুল ইসলাম বাদী হয়ে মামলা দায়ের করে। অভিযুক্ত স্বামীকে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে আদালতে পাঠানো হবে বলেও জানান তিনি।

এদিকে ঝালকাঠির সুগন্ধা নদী থেকে এক ব্যক্তির গলিত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল সোমবার রাত ১১টার দিকে শহরের স্টিমারঘাট এলাকার সুগন্ধা নদী থেকে লাশ উদ্ধার করা হয়। নিহত ব্যক্তির পরিচয় এখনো নিশ্চিত করতে পারেনি পুলিশ। মৃত ব্যক্তি আনুমানিক ১৫ দিন ধরে পানিতে ছিল বলে ধারণা করছে পুলিশ।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, গতকাল রাত ১০টার দিকে সুগন্ধা নদীর স্টিমারঘাটের পাশে দুই জেলে মাছ ধরতে যান। মানিক নামের এক জেলে স্টিমারঘাটের পাশে মাছ ধরার ফাঁদ পাতেন। কিছুক্ষণ পর তিনি সেখান থেকে দুর্গন্ধ পান। পরে টর্চলাইট জ্বালিয়ে তিনি সেখানে একটি গলিত লাশ দেখতে পান।

ঝালকাঠি থানার উপপরিদর্শক গৌতম কুমার ঘোষ জানান, লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য ঝালকাঠি সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।