কাজী খলিলুর রহমান, ঝালকাঠি প্রতিনিধি : “এসো রক্তদানে এগিয়ে যাই” স্লোগানে ঝালকাঠিতে ১৪ই জুন বিশ্ব রক্তদাতা দিবস উপলক্ষে ইয়ুথ অ্যাকশন সোসাইটি-ইয়াস এর আয়োজনে ও ইয়াস ব্লাড ব্যাংকের সহযোগিতায় ঝালকাঠি জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে সকাল ১০ ঘটিকায় “রক্তযোদ্ধা সম্মাননা”-২০২২ সিজন (৩) অনুষ্ঠিত হয়েছে।

উক্ত রক্তযোদ্ধা সম্মাননা – ২০২২ এর সিজন(৩) এ প্রধান অতিথী হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক কামাল হোসেন। তিনি তার বক্তব্য প্রথমেই সকল রক্তদাতা ও রক্তযোদ্ধাদের শুভেচ্ছা জানান। ঝালকাঠিতে ইয়াসের এমন উদ্যোগকে তিনি স্বাগত জানান।

তিনি আরো বলেন বর্তমানে পূর্বের থেকে যেমন রক্তের চাহিদা বাড়ছে তেমনি রক্তদাতাও বাড়ছে এর মূল কারন সচেতনতা সৃষ্টি হয়েছে। আর এই সচেতনতা সৃষ্টি হচ্ছে এমন সংগঠন গুলো তৈরী হওয়ার ফলে। পূর্বে গ্রামাঞ্চলের মানুষ জানতোই না যে রক্ত গ্রহণ করা সম্ভব সেটা এখন অনেক টাই জানছে বিভিন্ন অঞ্চলে রক্তদাতাদের এই সামাজিক সংগঠন তৈরী হবার ফলে। রক্তযোদ্ধাদের সম্মাননা প্রদান করায় তারা অনুপ্রানিত হবে তাই এমন আয়োজন করা অবশ্যই উত্তম। আমাদের সর্বাত্মক সহযোগিতা থাকবে।

উক্ত আয়োজনে বিশেষ অতিথীর বক্তব্যে উপদেষ্টা ইসরাত জাহান সোনালী সুমাইয়া রহমান সেতুকে সভাপতি ও রনী চন্দ্রকে সাধারণ সম্পাদক করে ইয়াস ব্লাড ব্যাংক, ঝালকাঠি শাখার ২০২২-২০২৪ সালের ১৫ সদস্য বিশিষ্ট কার্যনির্বাহী কমিটি ঘোষনা করেন।

আরো বক্তব্য রাখেন ইয়াসের উপদেষ্টা হাসান মাহমুদ, ছবির হোসেন। রক্তযোদ্ধা সম্মাননা গ্রহন করায় অনুভুতি ব্যক্ত করেন রক্তদাতা মোঃ আমির হোসেন উজ্জল, মশিউর রহমান শাহিন। বক্তব্যকালীন সময়ে মিনহাজ সাদ্দামের রক্তদাতাদের উৎসর্গ করে লেখা একক কাব্যগ্রন্থ থেকে লাল ভালোবাসা কবিতাটি আবৃত্তি করে শুনান।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন ইয়াসের সভাপতি শাকিল হাওলাদার রনি, সাংগঠনিক সম্পাদক সাব্বির হোসেন রানা এছাড়াও ইয়াস ও ইয়াস ব্লাড ব্যাংকের অন্যান্য সদস্যরা।

অনুষ্ঠানের সঞ্চালনা করেন ইয়ুথ অ্যাকশন সোসাইটি – ইয়াসের সাধারণ সম্পাদক মাহিদুল ইসলাম। শুভেচ্ছা বক্তব্য প্রদান করেন ইয়াস ব্লাড ব্যাংকের সাধারণ সম্পাদক রনি চন্দ্র।

এবারে ২০২২ সনে রক্তযোদ্ধা সম্মাননা পেয়েছে ঝালকাঠি জেলার ১৪জন রক্তযোদ্ধা তারা হলেন মোঃ হাসান মাহমুদ, মোঃ আমির হোসেন উজ্জল, মোঃ রিয়াজ হোসেন, মোঃ আরিফুর রহমান, এইচ এম আসলাম মাহমুদ, মশিউর রহমান শাহিন, তন্ময় চন্দ্র অভি, যুবরাজ দাস, খান জাহান রিমন, সিতারা ইসলাম, শান্তা ইসলাম সুমি, হৃদয় কর্মকার, রাকিবুল ইসলাম রিফাত ও ইয়াসিন ইসলাম মুন। তারা সকলেই বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের সদস্য।